বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিএনপির বিরুদ্ধে গায়েবি মামলার প্রমাণ নেই : আমু  » «   অংশ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য সহযোগিতা করতে প্রস্তুত ইইউ  » «   কমলগঞ্জে ট্রাক চাপায় তরুণী নিহত,চালক পালাতক  » «   বি. চৌধুরীর চায়ের দাওয়াতে যাচ্ছে ন্যাপ–এনডিপি  » «   নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল: ইসি সচিব  » «   ঈশ্বর, মৃত্যু-পরবর্তী জীবন ও স্বর্গ নিয়ে যা ভাবতেন স্টিফেন হকিং  » «   আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির দৃষ্টান্ত: এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্রকে সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা দিল সৌদি  » «   দুর্গাপূজা যেভাবে হলো হিন্দুদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব  » «   সিলেটে ফোনে কথা বলা অবস্থায় যুবকের হঠাৎ মৃত্যু  » «   ইরান কখনো পরমাণু বোমা বানাবে না: রুহানি  » «   সিলেটে সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   বাংলাদেশে আরো সৌদি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী  » «   কানাডায় প্রকাশ্যে গাঁজা বিক্রি শুরু, ক্রেতাদের ভিড়  » «  

কাঙ্খিত ফলাফল না হওয়ায় ছাত্রীর আত্মহত্যা



নিউজ ডেস্ক:: এসএসসির পরীক্ষার কাঙ্খিত ফলাফল না হওয়ায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ভূমিকা রাণী রায় (১৫) নামে এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। অপরদিকে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে তিন জন শিক্ষার্থী দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

নিহত ভূমিকা রাণী রায় বীরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের বানপাড়া গ্রামের হেমন্ত রায়ের মেয়ে। সোমবার (৭ মে) সকাল ১০টায় পুলিশ বাড়ীর গোয়াল ঘর থেকে ভূমিকা রাণী রায়ের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে।

ভূমিকা রাণী রায়ের পিতা হেমন্ত রায় জানান, ভূমিকা রাণী রায় নিজপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। রবিবার ফলাফল প্রকাশের পর জানা যায় ভূমিকা রাণী রায় ৩.৬১ পেয়ে পাশ করেছে। ফলাফলে সে খুশি না হওয়ায় বেশ কান্নাকাটি করে। আমরা তাকে বুঝিয়ে শান্ত করি। এরপর সে রাতে ভাত খাওয়ার পর নিজ ঘরে ঘুমাতে যায়। সোমবার ভোরে ঘুম থেকে উঠে গোলায় ঘরে গরু বের করতে গিয়ে মেয়ের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পাই। আমার আত্মচিৎকারে প্রতিবেশিরা ছুটে আসে। পরে পুলিশকে সংবাদ দেওয়া হলে তারা এসে মৃত উদ্ধার করে।

বীরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ সাকিলা পারভীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মেয়েটি আবেগ তাড়িত হয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ ব্যাপারে কোন অভিযোগ না থাকায় পরিবারের কাছে মৃতদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বীরগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অপরদিকে ফলাফলে সন্তোষ্ট হতে না পেরে বিরল উপজেলার বড়বদ্যনাথপুর গ্রামের আব্দুল হালিমের ছেলে তুহিন(১৬) ঘুমের ওষুধ খেয়ে, শহরের সুইহারী চৌরঙ্গী সিনেমা হল এলাকার ফজলুর রহমানের মেয়ে আশা মনি (১৭) হারপিক খেয়ে ও বালুবাড়ী এলাকার বাছিরের মেয়ে সুনিতা(১৬) ঘুমের ওষুধ খেয়ে আতœহত্যার চেষ্টা চালায়। পরিবারের লোকজন জানতে পেরে তাদেরকে গত রবিবার সন্ধ্যায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ড মাষ্টার মাসুদ রানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: