রবিবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নিজের বিয়ে বন্ধ করতে যে কাণ্ড করেছিলেন বাজপেয়ী  » «   ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে ফ্রান্সের ৮৪০টি সেতু!  » «   ১ লাখ জাল নোট তৈরিতে খরচ মাত্র ১০ হাজার টাকা!  » «   সেপ্টেম্বরেই ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় : আইনমন্ত্রী  » «   কফি আনানের মৃত্যুতে বিশ্ব নেতাদের শোক  » «   কেরালায় বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৫৭  » «   বন্যার্তদের জন্য অনন্য নজির কেরালার মাছ ব্যবসায়ী ছাত্রীর  » «   বয়স ৬২, অপরাধ ১১২, কে এই মহিলা ডন?  » «   কোরবানির পশুর হাট: মিয়ানমার থেকে গবাদি পশুর রেকর্ড আমদানি  » «   ‘এবার নয়, সংলাপ হবে পরবর্তী নির্বাচনে’  » «   হজযাত্রীর মৃত্যুর সংখ্যা অর্ধশতাধিক  » «   পশুর মজুদ পর্যাপ্ত, সঙ্কটের আশঙ্কা নেই: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী  » «   হাসপাতালের টয়লেটে জোর করে স্কুলছাত্রীর নগ্ন ছবি ধারণ!  » «   সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী‘রাজধানীতে বস্তি থাকছে না  » «   জামিন পেলো সেই ২২ শিক্ষার্থী  » «  

কলেজছাত্রীকে কৌশলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ!



নিউজ ডেস্ক::বর্তমানে ধর্ষণের মতো এই নেক্কার জনক ঘটনা সমাজে এতোটাই বেড়ে গিয়েছে যা কোনো ভাবেই দমন করা সম্ভব হচ্ছে না। প্রতিনিয়তই ঘটছে এই এরকম ঘটনা।

সম্প্রতি যশোরের চৌগাছায় একজন কলেজছাত্রী (২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণের শিকার ওই কলেজছাত্রীকে গুরুতর মারাত্মক অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে জানা গেছে।

ধর্ষিতা ওই কলেজছাত্রী চৌগাছা ডিগ্রি কলেজে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চৌগাছা উপজেলার মাধবপুর গ্রামের একটি বাড়িতে ওই ছাত্রীর কথিত প্রেমিক তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করা হয়।

এ ঘটনার পর মেয়েটির মা বলেন, ‘এক সহপাঠীর সাথে তার সম্পর্ক ছিল। তার নাম বাপ্পি। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তার মেয়েকে বেড়ানোর নাম করে কৌশলে বাপ্পি তার ফুপুরবাড়ি মাধবপুর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে বাপ্পি। এর ফলে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে।’

এ রকম ঘটনা তার সঙ্গে ঘটেছে আঁচ করতে পেরে তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। কিন্তু তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ডাক্তার তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে। সাথে সাথে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা গুরুতর বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এদিকে, হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আব্দুর রহিম মোড়ল জানান, রোগীর গোপনাঙ্গে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। সেখান থেকে প্রচুর পরিমাণ রক্তক্ষরণও হয়েছে। গাইনি ডাক্তাররা বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছেন। মেডিকেল রিপোর্ট আসার পর বলা যাবে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে। এর আগে, কিছু বলা যাচ্ছে না।

এ বিষয়ে চৌগাছা থানার ওসি খন্দকার শামিম উদ্দিন জানান, ‘এ রকম ঘটনা আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে এখনো কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। তবে এ রকম অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: