মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘সে যে এত বড় প্রতারক, তা আমার জানা ছিল না’  » «   ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ছবি, ফেসবুকে তোলপাড়!  » «   বিশ্বকাপ সরাসরি দেখাবে যেসব টিভি চ্যানেল  » «   নিজের ঘরের মাদক ব্যবসায়ীদের ধরুন  » «   সেলিমা রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «   একাদশ সংসদ নির্বাচন : বিএনপিকে নিয়ে দুই কৌশল আ’লীগের  » «   সিলেট পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক  » «   মন্ত্রী-সচিবরা পাবেন ৭৫ হাজার টাকার মোবাইল  » «   রাজধানীতে নিরাপত্তা কর্মীকে খুন করে টাকা লুট  » «   চুয়াডাঙ্গার মাদক সম্রাট ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত  » «   বাসের চাপায় হাত হারিয়ে নিহত : রাজীবের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ মঙ্গলবার  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য খুলনার ভোটারদের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ তামাশা’  » «   অবশেষে খোঁজ পাওয়া গেল সৌদি যুবরাজের!  » «   সাদা চাদরে ‘সতীত্বের পরীক্ষা’ দিতে হলো না ঐশ্বর্যকে  » «   অপুর ঘরে কোন ধর্মে বেড়ে উঠছে আব্রাম?  » «  

কলেজছাত্রীকে কৌশলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ!



নিউজ ডেস্ক::বর্তমানে ধর্ষণের মতো এই নেক্কার জনক ঘটনা সমাজে এতোটাই বেড়ে গিয়েছে যা কোনো ভাবেই দমন করা সম্ভব হচ্ছে না। প্রতিনিয়তই ঘটছে এই এরকম ঘটনা।

সম্প্রতি যশোরের চৌগাছায় একজন কলেজছাত্রী (২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণের শিকার ওই কলেজছাত্রীকে গুরুতর মারাত্মক অবস্থায় যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে জানা গেছে।

ধর্ষিতা ওই কলেজছাত্রী চৌগাছা ডিগ্রি কলেজে দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চৌগাছা উপজেলার মাধবপুর গ্রামের একটি বাড়িতে ওই ছাত্রীর কথিত প্রেমিক তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করা হয়।

এ ঘটনার পর মেয়েটির মা বলেন, ‘এক সহপাঠীর সাথে তার সম্পর্ক ছিল। তার নাম বাপ্পি। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তার মেয়েকে বেড়ানোর নাম করে কৌশলে বাপ্পি তার ফুপুরবাড়ি মাধবপুর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধর্ষণ করে বাপ্পি। এর ফলে প্রচণ্ড রক্তক্ষরণ হয়ে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে।’

এ রকম ঘটনা তার সঙ্গে ঘটেছে আঁচ করতে পেরে তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। কিন্তু তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় ডাক্তার তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করে। সাথে সাথে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা গুরুতর বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এদিকে, হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার আব্দুর রহিম মোড়ল জানান, রোগীর গোপনাঙ্গে ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। সেখান থেকে প্রচুর পরিমাণ রক্তক্ষরণও হয়েছে। গাইনি ডাক্তাররা বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছেন। মেডিকেল রিপোর্ট আসার পর বলা যাবে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কিনা সে ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে। এর আগে, কিছু বলা যাচ্ছে না।

এ বিষয়ে চৌগাছা থানার ওসি খন্দকার শামিম উদ্দিন জানান, ‘এ রকম ঘটনা আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে এখনো কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। তবে এ রকম অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: