বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
১৪৪ ধারা ভঙ্গের অপরাধে ৩ জনকে জরিমানা, দায়িত্বে অবহেলায় ৪ জনকে অব্যাহতি  » «   মুক্তিযোদ্ধা হতে একাত্তরে ন্যূনতম বয়স নিয়ে রুল  » «   এবার নেচে গেয়ে দর্শক মাতাবেন শামীম ওসমান  » «   বাংলাদেশ সচেতন ছাত্র ফোরামের উদ্যেগে দুঃস্থ ও এতিমদের নিয়ে তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন পালন  » «   বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাংচুর মামলার আসামী যখন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী  » «   ভর্তি জালিয়াতি চক্রের দুইজন আটক  » «   পাবনায় আইডিবি’র ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিক উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত  » «   তারেক রহমানের ৫৩তম জন্মদিন পালন করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দল ফ্রান্স শাখা  » «   আরব সভ্যতা টিকবে না : আদোনিস  » «   জন্মদিনে তারেকের সুস্থতা কামনা করে খালেদার টুইট  » «   তনুর পরিবারকে ঢাকায় ডেকেছে সিআইডি  » «   যৌন হয়রানির শিকার উত্তর কোরিয়ার নারী সৈন্যরা  » «   মোদির বিরুদ্ধে আঙুল তুললে কেটে ফেলা হবে, হুমকি বিজেপি নেতার  » «   কমলগঞ্জে সংখ্যালঘুর বাড়িতে হামলা: পিইসি পরীক্ষার্থী সহ আহত ৩  » «   নাতির সঙ্গে পিএসপি পরীক্ষা দিচ্ছেন নানি  » «  

ওসমানীনগরে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড



ডেস্ক রিপোর্ট:: ওসমানীনগরে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে কয়েছ মিয়া নামে এক ব্যক্তির মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক মোছাম্মৎ রোকশানা বেগম হেপি এ আদেশ দেন।
দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েছ মিয়া বর্তমানে পলাতক রয়েছেন। তিনি মৌলভীবাজার জেলার পূর্ব মধুহাটি গ্রামের আবদুল খালিকের ছেলে।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০০৯ সালের ২৪ জুলাই রাতে সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার মোবারকপুর গ্রামে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান কয়েস মিয়া। ওই রাতেই তিনি স্ত্রী সুলতানা বেগমের গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পালিয়ে যান।
এ ঘটনায় নিহত সুলতানার মা সুন্দর বিবি বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। ওই বছরের ২৪ ডিসেম্বর কয়েস মিয়াকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।
সংশ্লিষ্ট আদালতের এপিপি মোস্তফা দিলওয়ার আল আজহার জানান, মামলার ১৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ১২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত বুধবার কয়েস মিয়ার মৃত্যুদণ্ড দেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: