শনিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
সালমানের প্রথম ভালো লাগা কে?  » «   দুই যুবকের সঙ্গে ২০ বছর বয়সী তরুণী, এরপর…  » «   হাওয়া ভবন থেকে মানুষকে স্বস্তি দিতে ১৪ দলীয় জোট : খালিদ মাহমুদ  » «   ফখরুলের বক্তব্যের সমালোচনা করে যা বললেন ওবায়দুল কাদের  » «   ভালবেসে বিয়ে, কিভাবে এতটা নির্মম হয় রনিরা?  » «   প্রধানমন্ত্রীর কাছে ১০ মিনিট সময় চান ড. কামাল  » «   ভেরিফায়েড হলো মোস্তাফা জব্বারের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগ : রিমান্ডে সেই গৃহবধূ ফারিয়া  » «   সাবেক সেনা কর্মকর্তাকে উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা  » «   সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি!  » «   গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গৃহবধূ আটক  » «   ‘গর্বিত বাঙালির বিজয়ের দুই প্রতিচ্ছবি’  » «   ২৬ বছর পরে শাহরুখ!  » «   পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে পারে টুইটার  » «   সানি লিওন এবার ক্রিকেটার!  » «  

এ রায়ের পর সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারে না: ফখরুল



নিউজ ডেস্ক:: ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর সরকার আর ক্ষমতায় থাকতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদে দেখেছি, ষোড়শ সংশোধনীর রায়ে যা লেখা হয়েছে এরপর কোনো সভ্য দেশের সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারে না। সরকারের পদত্যাগ করা উচিত। আমরা সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানাচ্ছি।
বুধবার রাতে বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বাসায় কয়েকটি রাজনৈতিক দলের বৈঠক প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, অনৈতিক এবং অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে কেউ উদ্যোগ গ্রহণ করলে বিএনপি তাতে সমর্থন জানাবে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে দলের সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক নিয়ে এক যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
মির্জা ফখরুল বলেন, রায়ের পর্যবেক্ষণে এটাও বলা হয়েছে যে নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। এ কথায় পরিস্কার হয়ে গেছে যে সরকার ব্যর্থ। তারা গায়ের জোরে ক্ষমতায় আছে। দেশের মানুষ গণতন্ত্রকামী। এখানে মানুষের আশা আকাঙ্খাকে ধ্বংস করে দিয়ে কেউ ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারেনি। এই সরকারও টিকে থাকতে পারবে না। জনগণের রায়ে তারা অবশ্যই পরাজিত হবে।
সম্প্রতি বগুড়ায় ধর্ষণের পর মেয়ে ও মাকে নির্যাতনের ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সারাদেশে একই চিত্র। কোথাও কারো নিরাপত্তা নেই। এ ঘটনায় পরিস্কার হয়ে গেছে, আওয়ামী লীগের লোকেরাই এই সকল দুর্বৃত্তায়নের সঙ্গে জড়িত।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: