শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দ্য হান্ড্রেডের ড্রাফটে আরও ৫ বাংলাদেশি ক্রিকেটার  » «   বাংলা একাডেমির সুপারিশে বদলে গেল বাংলা বর্ষপঞ্জি  » «   ওসমানীনগরে নামাজের সময় মাছ বিক্রি বন্ধ  » «   মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে হংকং ‘ডেমোক্রেসি অ্যাক্ট’ পাস  » «   গুগল ম্যাপে আবরারের নামে হল, খুনিদের নামে শৌচাগার  » «   গণশপথ নিয়ে আন্দোলনের ইতি টানলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা  » «   দক্ষিণ আফ্রিকায় মসজিদে যাওয়ার পথে গুলিতে বাংলাদেশির মৃত্যু  » «   তুরস্কের বিরুদ্ধে লড়তে কুর্দিদের ‘প্রশিক্ষণ দিয়েছিল’ যুক্তরাষ্ট্র  » «   অপরাধ প্রতিরোধে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন: পুলিশ সুপার  » «   আবরার হত্যা: ২০ জনকে আসামি করে চার্জশিট হচ্ছে  » «   কানাইঘাটে ১১টি ভারতীয় গরু আটক  » «   জাবির গণরুম: ম্যানার শেখানোর নামে নবীন শিক্ষার্থী নির্যাতন  » «   কতগুলো বাটপার আছে যারা জাতীয় নেতা: ভিপি নুর  » «   ১৫ দিনে পাসপোর্ট না হলে কারণ জানিয়ে দিতে হবে আবেদনকারীকে  » «   ভারতে পালানোর সময় আবরার হত্যার আসামি সাদাত গ্রেফতার  » «  

এ মাসেই নির্মাণকাজ উদ্বোধন বস্তিবাসীদের জন্য ৫৫০ বহুতল ভবন



নিউজ ডেস্ক::রাজধানী ঢাকার বস্তিবাসীদের আবাসন সমস্যা নিরসনের জন্য ভাড়া ভিত্তিক ৫৫০ বহুতল ভবন নির্মাণ করবে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এ মাসেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব ভবনের নির্মাণকাজ উদ্বোধন করবেন বলে জানা গেছে। ৬৫০ বর্গফুটের এসব ভবনে থাকতে হলে প্রত্যেক পরিবারকে মাসে আট হাজার টাকা ব্যয় করতে হবে।

কমপক্ষে ছয়জন এসব ভবনের প্রতিটি ফ্ল্যাটে বাস করতে পারবে। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের গৃহায়ন অধিদফতর এসব ভবন নির্মাণ করবে। বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স করপোরেশন গৃহায়ন মেলার উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় গৃহায়ণ ও গণপুর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এসব তথ্য দেন।

বস্তিবাসীরা আট হাজার টাকা কোথায় পাবে ভবনে থাকার জন্য? এ প্রশ্নের উত্তর মন্ত্রী নিজেই দিয়েছেন। তিনি বলেন, এখন প্রতিটি শ্রমিকের দৈনিক আয় কমপক্ষে ৫০০ টাকা। অনেকে বেশিও আয় করেন। ফলে মাসে আট হাজার টাকা দেয়া কষ্টের হবে না।

মোশাররফ হোসেন বলেন, এসব ভবনে উঠার জন্য লিফটের ব্যবস্থাও থাকবে। তবে বাথরুম ও টয়লেট ভাগাভাগি করে ব্যবহার করতে হবে। মন্ত্রী জানান, মোহাম্মদপুরের বস্তিবাসীদের জন্য বসিলাতে বানানো হবে ১৪ তলা বিশিষ্ট ৫৬টি এপার্টমেন্ট। ঢাকার বস্তিতে সেবা দেয়া এনজিওদের মন্ত্রী তথাকথিত সেবাদানকারী উল্লেখ করে বলেন, এসব এনজিও বছরের পর বছর বস্তিতে কাজ করে। কিন্তু বস্তিবাসীদের জীবন মানের কোনো উন্নয়ন হয়না। কিন্তু এনজিও কর্মীরা ডলারে বেতন তোলে। আমরা বস্তিবাসীদের উন্নয়নের জন্য পরিকল্পিত কাজ করার পরিকল্পনা নিয়েছি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: