বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিএনপির বিরুদ্ধে গায়েবি মামলার প্রমাণ নেই : আমু  » «   অংশ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য সহযোগিতা করতে প্রস্তুত ইইউ  » «   কমলগঞ্জে ট্রাক চাপায় তরুণী নিহত,চালক পালাতক  » «   বি. চৌধুরীর চায়ের দাওয়াতে যাচ্ছে ন্যাপ–এনডিপি  » «   নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল: ইসি সচিব  » «   ঈশ্বর, মৃত্যু-পরবর্তী জীবন ও স্বর্গ নিয়ে যা ভাবতেন স্টিফেন হকিং  » «   আইয়ুব বাচ্চুর মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শোক  » «   সাম্প্রদায়িক সম্প্রতির দৃষ্টান্ত: এক উঠোনে মসজিদ-মন্দির  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্রকে সাড়ে ৭ হাজার কোটি টাকা দিল সৌদি  » «   দুর্গাপূজা যেভাবে হলো হিন্দুদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব  » «   সিলেটে ফোনে কথা বলা অবস্থায় যুবকের হঠাৎ মৃত্যু  » «   ইরান কখনো পরমাণু বোমা বানাবে না: রুহানি  » «   সিলেটে সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   বাংলাদেশে আরো সৌদি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী  » «   কানাডায় প্রকাশ্যে গাঁজা বিক্রি শুরু, ক্রেতাদের ভিড়  » «  

এ কেমন বর্বরতা?মায়ের হাত কেটে নিল ছেলে!



নিউজ ডেস্ক::ফরিদপুর সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর এলাকায় সৎ মায়ের হাত কেটে নিয়েছে ছেলে। ভুক্তভোগী ওই নারীর নাম রেশমা বেগম (৩০)। তিনি ওই গ্রামের নুর ইসলাম শেখের দ্বিতীয় স্ত্রী। তার সৎ ছেলের নাম আল আমিন শেখ (২১)।

রবিবার (১৩ মে) উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নরসিংহদিয়া গ্রামে এ নির্মম ঘটনাটি ঘটে।

রেশমা বেগম জানিয়েছেন, তিনি লেবাননে থাকাকালীন সময়ে মোবাইল ফোনে প্রতিবেশী নুর ইসলামের সঙ্গে তা কথা হতো। এরপর তাদের মধ্যে প্রণয়ের বা প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ৫ মাস আগে লেবানন থেকে দেশে ফেরার পর প্রতিবেশী নুর ইসলামের সঙ্গে আহত রেশমা বেগমের বিয়ে হয়।

কিন্তু বিয়ের পর থেকে নুর ইসলামের প্রথম স্ত্রী আকলিমা ও তার ছেলে আল আমিন ঝগড়া-বিবাদ লাগিয়ে রাখতেন তার সঙ্গে। এ ঘটনার জেরে রবিবার (১৩ মে) সকালে হঠাৎ করেই আল আমিন ধারালো দা দিয়ে তার দ্বিতীয় বা সৎ মা রেশমা বেগমের দুই হাত ও পায়ে এলোপাথারি কোপায়।

এ ঘটনার পরে গ্রামবাসীরা রেশমা বেগমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে স্বামী নুর ইসলাম জানান, তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করায় ছেলে ক্ষিপ্ত ছিল। তার দুই স্ত্রী আলাদা বাড়িতে থাকেন। ছেলে তার দ্বিতীয় মাকে মেনে নিতে না পেরে এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানান তিনি।

হাসপাতালের চিকিৎসক অনাদীরঞ্জন মণ্ডল বলেন, রেশমার বাম হাত কব্জির ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ডান হাতেও গুরুতর জখম রয়েছে। এ ছাড়া দুই পা ও শরীরে কোপানো হয়েছে তাকে।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার ওসি এএফএম নাসিম জানান, উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নরসিংহদিয়া গ্রামে এ রকম ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: