শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অ্যাসাঞ্জের গোপন বৈঠকের খোঁজ নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র  » «   সৌদি নারীদের বিয়ে করতে পারবে বাংলাদেশিরা, মিলবে ভাতা  » «   এমপি কয়েসের হাত ধরে বিএনপির হাবিব এখন আওয়ামী লীগে  » «   জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী আজ  » «   রোহিঙ্গাদের দেখতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত  » «   ‘দম বন্ধ হয়ে আসছে, আমাকে ছেড়ে দিন’  » «   দুই যুগে কতটা সফল ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা?  » «   কলম্বিয়ায় পুলিশ একাডেমিতে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১০  » «   সোহরাওয়ার্দীতে আজ আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ  » «   জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «  

এ কেমন বর্বরতা?মায়ের হাত কেটে নিল ছেলে!



নিউজ ডেস্ক::ফরিদপুর সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর এলাকায় সৎ মায়ের হাত কেটে নিয়েছে ছেলে। ভুক্তভোগী ওই নারীর নাম রেশমা বেগম (৩০)। তিনি ওই গ্রামের নুর ইসলাম শেখের দ্বিতীয় স্ত্রী। তার সৎ ছেলের নাম আল আমিন শেখ (২১)।

রবিবার (১৩ মে) উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নরসিংহদিয়া গ্রামে এ নির্মম ঘটনাটি ঘটে।

রেশমা বেগম জানিয়েছেন, তিনি লেবাননে থাকাকালীন সময়ে মোবাইল ফোনে প্রতিবেশী নুর ইসলামের সঙ্গে তা কথা হতো। এরপর তাদের মধ্যে প্রণয়ের বা প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ৫ মাস আগে লেবানন থেকে দেশে ফেরার পর প্রতিবেশী নুর ইসলামের সঙ্গে আহত রেশমা বেগমের বিয়ে হয়।

কিন্তু বিয়ের পর থেকে নুর ইসলামের প্রথম স্ত্রী আকলিমা ও তার ছেলে আল আমিন ঝগড়া-বিবাদ লাগিয়ে রাখতেন তার সঙ্গে। এ ঘটনার জেরে রবিবার (১৩ মে) সকালে হঠাৎ করেই আল আমিন ধারালো দা দিয়ে তার দ্বিতীয় বা সৎ মা রেশমা বেগমের দুই হাত ও পায়ে এলোপাথারি কোপায়।

এ ঘটনার পরে গ্রামবাসীরা রেশমা বেগমকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে স্বামী নুর ইসলাম জানান, তিনি দ্বিতীয় বিয়ে করায় ছেলে ক্ষিপ্ত ছিল। তার দুই স্ত্রী আলাদা বাড়িতে থাকেন। ছেলে তার দ্বিতীয় মাকে মেনে নিতে না পেরে এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানান তিনি।

হাসপাতালের চিকিৎসক অনাদীরঞ্জন মণ্ডল বলেন, রেশমার বাম হাত কব্জির ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। ডান হাতেও গুরুতর জখম রয়েছে। এ ছাড়া দুই পা ও শরীরে কোপানো হয়েছে তাকে।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানার ওসি এএফএম নাসিম জানান, উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের নরসিংহদিয়া গ্রামে এ রকম ঘটনা ঘটেছে বলে শুনেছি। বিষয়টি খোঁজখবর নিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: