শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আগামীতে শহীদুজ্জামান সরকারকে নৌকা মার্কায় ভোট দিলে নজিপুর জেলাসহ সব উন্নয়ন হবে :নাসিম  » «   মাহিরাকে জোর করে চুমু খাওয়ার চেষ্টা, ভাইরাল ভিডিও  » «   বরের বয়স ৮৩ কনে ৩০  » «   ‘তারেকের নেতৃত্বে বিএনপি এখন অনেক শক্তিশালী’  » «   চলন্ত বাসে ডাকাতি ও চালক খুন, গ্রেপ্তার ১৩  » «   প্রধানমন্ত্রী ভোট চাচ্ছেন, খালেদা জিয়া অন্ধকার প্রকোষ্ঠে : ফখরুল  » «   কিশোরের মৃত্যু, লাশ রেখে সঙ্গীদের পলায়ন  » «   এক সঙ্গে তারা  » «   অশ্লীল কার্যকলাপে লিপ্ত, ১১ প্রেমিক যুগলের জরিমানা!  » «   দুই ঘণ্টার জন্য বিমান আটকে দিলো মশা  » «   বিয়ের নামে চীনে বিক্রি হচ্ছে পাহাড়ি মেয়েরা  » «   ডেকে নিয়ে যুবকের গলাকেটে হত্যা  » «   বড়লেখার মেধাবী তোফায়েলের চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক লাভ  » «   পুলিশ পরিচয়ে কিশোরীকে যুবলীগ নেতার ধর্ষণ  » «   সিলেটে হবে ভারতীয় হাইকমিশন অফিস  » «  

এমবিবিএস পরীক্ষায় ৫ নম্বর কাটার বিরুদ্ধে রিট



নিউজ ডেস্ক::নতুন শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় আগের বছর এইচএসসি উত্তীর্ণদের প্রাপ্ত মোট নম্বর থেকে পাঁচ নম্বর কেটে মেধা তালিকা তৈরি করা হবে-সরকারের এ সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

রোববার (২৭ আগস্ট) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ এ রিট দায়ের করেন। বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো.জাহাঙ্গীর হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চে চলতি সপ্তাহে এ আবেদনের উপর শুনানি হতে পারে বলে জানান ইউনুছ আলী আকন্দ।

তিনি জানান, পত্রিকার মাধ্যমে জেনেছি এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তির ৬ নং অনুচ্ছেদে দ্বিতীয়বার পরীক্ষার্থীদের থেকে ৫ নম্বর কাটা হবে। অন্যদের কাটা হবে না। এটা সমতার লংঘন। এই সিদ্ধান্ত বৈষম্যমূলক।

২১ আগস্টের পত্রিকায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক বিজ্ঞপ্তির ৬ নম্বর কলামে বলা হয়, ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস/বিডিএস ভর্তি পরীক্ষায় পূববর্তী বছরের এইচএসসি উত্তীর্ণদের পরীক্ষার্থীদের সর্বমোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর কর্তন করে ……মেধা তালিকা তৈরি করা হবে।

তিনি বলেন, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ এর চিকিৎসা সেবা ও স্বাস্থ্য কৌশল চ্যাপ্টার এর এক নম্বর অনুচ্ছেদে উল্লেখ আছে, “মেডিকেল কলেজে ভর্তির জন্য উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া অব্যাহত থাকবে। ভর্তি পরীক্ষায় কোন প্রার্থী দুই বছরের জন্য অংশ গ্রহণের সুযোগ পাবে”।

সুতরাং এ সিদ্ধান্ত শিক্ষানীতির পরিপন্থী। রিটে স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, পরিচালক(চিকিৎসা শিক্ষা ও স্বাস্থ্য জনশক্তি উন্নয়ন), মেডিকেল ও ডেন্টাল কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে বিবাদি করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: