শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল সংসদে ফেরত পাঠানোর আহ্বান  » «   কোনো বইকে নিষিদ্ধ করা ঠিক নয় : অর্থমন্ত্রী  » «   সিলেটে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে লাল কার্ড প্রদর্শন ও মানববন্ধন  » «   ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক হবে প্রধানমন্ত্রীর  » «   কাশ্মীর বিদ্রোহী নেতার নামে পাকিস্তানের ডাকটিকিটি প্রকাশ  » «   সংসদ নির্বাচনে হুমকি ‘সাইবার ক্রাইম’, গুজব ঠেকাতে সজাগ পুলিশ  » «   তাঞ্জানিয়ায় ফেরি ডুবি, নিহত বেড়ে ১৩৬  » «   আইনগত অনুমোদন পেলেই সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার: সিইসি  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের কার জন্য কত টাকা গৃহঋণ  » «   গণেশের ছবি দিয়ে বিজ্ঞাপন: হিন্দুদের কাছে ট্রাম্পের দলের দুঃখ প্রকাশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলো কোটা বাতিলের সুপারিশ  » «   রেলের আধুনিকায়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  » «   কেন মুনকে বিশেষ সেই ‘পবিত্র পর্বতে’ নিয়ে গেলেন কিম?  » «   সুখোই কিনলে ভারতকেও নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে!  » «   প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের পথে লন্ডন পৌঁছেছেন  » «  

এবার অ্যাপে মিলবে অটোরিকশা



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ::নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই ঢাকায় অ্যাপে মিলবে সিএনজি চালিত অটোরিকশা। এটাই হবে সিএনজি অটোরিকশার প্রথম অ্যাপ যাত্রা। অ্যাপে রিকোয়েস্ট দিয়ে যেমন সিএনজি মিলবে তেমনি অ্যাপ ছাড়া শুধু চালকের মোবাইল ব্যবহার করে চলাচল করা যাবে। এজন্য দুই হাজার স্মার্টফোন চালকের হাতে তুলে দিয়ে এ সেবা শুরু করবে ‘গতি-লেটসগো’ নামের অ্যাপ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে এই অ্যাপের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। আগামী ১ জানুয়ারি থেকে অ্যাপের যাত্রা শুরু হবে বলে জানান গতি-লেটসগো অ্যাপের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এন. আই. বিআইজেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) এন জামান চৌধুরী জেমস।

এন জামান চৌধুরী জেমস আরও বলেন, সিএনজি অটোরিকশায় যে মোবাইল ফোন দেয়া হবে সেগুলোকে শুধু গতি অ্যাপের জন্য নির্দিষ্ট করে দেয়ার চিন্তা করছেন তারা। যাতে সেখানে অন্য কোনো অ্যাপ না চলে। সেক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত বিষয়গুলো এখনও বিবেচনা করা হচ্ছে। যাদের কাছে অ্যাপ নেই তারাও অ্যাপভিত্তিক সেবাটি ব্যবহার করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যাত্রীর মোবাইলের প্রয়োজন নেই।

এক প্রশ্নের জবাবে জেমস বলেন, এই অ্যাপে মালিক, চালক ও যাত্রী রেজিস্ট্রেশন ভুক্ত থাকবে। ফলে সিএনজি অটোরিকশায় কিছু ফেলে রেখে গেলে ফেরত পাওয়া যাবে। এছাড়া ড্রাইভারদের আয় বাড়বে। যাত্রীরা আরও ভাল সেবা পাবে।

অ্যাপ বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং পার্টনার চপল জানান, সিএনজি অটোরিকশার মালিককে মূলত মোবাইল ফোনটি দেয়া হবে। কারণ একজন মালিকের একাধিক সিএনজি রয়েছে। আবার একটি সিএনজি ২-৩ জন চালক চালান। যখন যে চালাবে তার আইডি লগইন করে চালাতে পারবে। আর সিএনজি মালিক অ্যাপটির ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজস্ব আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে ঢুকে দেখতে পারবে কতটি ট্রিপ কোথায় কোথায় হয়েছে। ২১-৩১ ডিসেম্বর রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শেষ করে ১-৩ হাজারেরও বেশি সিএনজি অটোরিকশায় অ্যাপটি ছাড়ার ইচ্ছা তাদের।

চপল আরো জানান, সিএনজি চালকদের অ্যাপে নিয়ে আসতে যেসব প্রতিবন্ধকতা তা বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। শুরুতে সিএনজি চালক আর মালিকদের অনেক সমিতি দেখে পরে পৃথকভাবে মালিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেই অ্যাপ সেবার কথা আলোচনা হয়েছে। এতেই মালিকপক্ষ রাজি হয়। তবে রাইড শেয়ারিংয়ের যে নীতিমালা করছে সরকার সেখানে সবশেষ খসড়ায় সিএনজি অটোরিকশাকে অ্যাপ সেবার বাইরে রাখার বিধান যুক্ত করা হয়। যদিও সরকার নির্ধারিত মিটার কার্যত অচল।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: