শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চমক থাকছে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে  » «   দুই-তিন দিনের মধ্যে ইসিতে যাবে বিএনপি  » «   কাদের সিদ্দিকী রাজাকার, বদমাইশ : মির্জা আজম  » «   নির্বাচনের ৭ দিন আগে ব্যালট পৌঁছে যাবে: ইসি সচিব  » «   রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে চান ড. কামাল  » «   যুক্তরাষ্ট্র-অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড কানাডায় বোমা হামলার হুমকি  » «   ক্ষমা চাইলেন ড. কামাল  » «   মন্দিরের প্রসাদ খেয়ে ১১ জনের মৃত্যু, অসুস্থ ৮১  » «   ২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «  

এবার অ্যাপে মিলবে অটোরিকশা



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক ::নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই ঢাকায় অ্যাপে মিলবে সিএনজি চালিত অটোরিকশা। এটাই হবে সিএনজি অটোরিকশার প্রথম অ্যাপ যাত্রা। অ্যাপে রিকোয়েস্ট দিয়ে যেমন সিএনজি মিলবে তেমনি অ্যাপ ছাড়া শুধু চালকের মোবাইল ব্যবহার করে চলাচল করা যাবে। এজন্য দুই হাজার স্মার্টফোন চালকের হাতে তুলে দিয়ে এ সেবা শুরু করবে ‘গতি-লেটসগো’ নামের অ্যাপ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে এই অ্যাপের বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। আগামী ১ জানুয়ারি থেকে অ্যাপের যাত্রা শুরু হবে বলে জানান গতি-লেটসগো অ্যাপের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এন. আই. বিআইজেড-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) এন জামান চৌধুরী জেমস।

এন জামান চৌধুরী জেমস আরও বলেন, সিএনজি অটোরিকশায় যে মোবাইল ফোন দেয়া হবে সেগুলোকে শুধু গতি অ্যাপের জন্য নির্দিষ্ট করে দেয়ার চিন্তা করছেন তারা। যাতে সেখানে অন্য কোনো অ্যাপ না চলে। সেক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত বিষয়গুলো এখনও বিবেচনা করা হচ্ছে। যাদের কাছে অ্যাপ নেই তারাও অ্যাপভিত্তিক সেবাটি ব্যবহার করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যাত্রীর মোবাইলের প্রয়োজন নেই।

এক প্রশ্নের জবাবে জেমস বলেন, এই অ্যাপে মালিক, চালক ও যাত্রী রেজিস্ট্রেশন ভুক্ত থাকবে। ফলে সিএনজি অটোরিকশায় কিছু ফেলে রেখে গেলে ফেরত পাওয়া যাবে। এছাড়া ড্রাইভারদের আয় বাড়বে। যাত্রীরা আরও ভাল সেবা পাবে।

অ্যাপ বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং পার্টনার চপল জানান, সিএনজি অটোরিকশার মালিককে মূলত মোবাইল ফোনটি দেয়া হবে। কারণ একজন মালিকের একাধিক সিএনজি রয়েছে। আবার একটি সিএনজি ২-৩ জন চালক চালান। যখন যে চালাবে তার আইডি লগইন করে চালাতে পারবে। আর সিএনজি মালিক অ্যাপটির ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজস্ব আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে ঢুকে দেখতে পারবে কতটি ট্রিপ কোথায় কোথায় হয়েছে। ২১-৩১ ডিসেম্বর রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শেষ করে ১-৩ হাজারেরও বেশি সিএনজি অটোরিকশায় অ্যাপটি ছাড়ার ইচ্ছা তাদের।

চপল আরো জানান, সিএনজি চালকদের অ্যাপে নিয়ে আসতে যেসব প্রতিবন্ধকতা তা বিবেচনায় নেয়া হয়েছে। শুরুতে সিএনজি চালক আর মালিকদের অনেক সমিতি দেখে পরে পৃথকভাবে মালিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করেই অ্যাপ সেবার কথা আলোচনা হয়েছে। এতেই মালিকপক্ষ রাজি হয়। তবে রাইড শেয়ারিংয়ের যে নীতিমালা করছে সরকার সেখানে সবশেষ খসড়ায় সিএনজি অটোরিকশাকে অ্যাপ সেবার বাইরে রাখার বিধান যুক্ত করা হয়। যদিও সরকার নির্ধারিত মিটার কার্যত অচল।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: