শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৪ ডিসেম্বর মাঠে নামছে সেনাবাহিনী, থাকবেন ম্যাজিস্ট্রেটও  » «   ইন্টারনেটে ধীর গতি ও মোবাইল ব্যাংকিং বন্ধ চায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী  » «   প্রার্থিতা নিয়ে শুনানি: আদালতের প্রতি খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের অনাস্থা  » «   আওয়ামী লীগ ১৬৮ থেকে ২২০ আসনে জিতবে: জয়  » «   সিলেট-২ আসনে বিএনপির প্রার্থী তাহসিনা রুশদীর লুনার মনোনয়ন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট  » «   আম্বানি কন্যার বিয়েতে নাচলেন হিলারি ক্লিনটন [ভিডিও ]  » «   সিলেট-১ আসনে ধানের শীষের প্রচারণার একসঙ্গে মুক্তাদির-আরিফ  » «   সহিংসতার ঘটনা খতিয়ে দেখতে সিইসির নির্দেশ  » «   ‘ইডিয়ট’ লিখে গুগলে সার্চ দিলে কেনো আসে ট্রাম্পের ছবি?  » «   বিশ্ব ভ্রমণ করবে বাংলাদেশের প্রথম বিদ্যুৎচালিত গাড়ি  » «   খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি আরব ছাড়পত্র পাবে না: নিক্কি হ্যালি  » «   গুগলে সবচেয়ে বেশি খোঁজ খালেদা ও হিরো আলম  » «   আস্থা ভোট, নেতৃত্বের পরীক্ষায় উতরে গেলেন তেরেসা মে  » «   ফোনালাপ ফাঁস: খন্দকার মোশাররফের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ  » «   নির্বাচনে এজেন্ট পাওয়া নিয়ে চিন্তায় বিএনপি  » «  

‘এত কিছু থাকতে জুয়া খেলা নিয়ে নিউজ করবেন’



ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ২নং আমগাঁও ইউনিয়নের আম বাগান বাড়িতে প্রতিদিন জমজমাট জুয়ার আসর বসে। এ বিষয়ে অজ্ঞাত কারণে সর্বস্তরের প্রশাসন নীরব ভূমিকা পালন করছে।

উপজেলার এক নির্জন এলাকা এই আম বাগান বাড়ি। দিনের বেলাতেও অনেকে যেতে ভয় করবে এইসব জায়গায়। সন্নিকটে দেশের সীমান্ত এলাকা। প্রতিদিন দুপুর থেকে রাত আটটা অব্দি চলে এই মরননেশা খেলা। অনেকে জুয়া খেলতে এসে টাকা পয়সা হেরে যাওয়ার পর সেখানেই দালালদের কাছে অল্প দামে ধান, ভূট্টা, গরু, ছাগল, মোটরসাইকেল ইত্যাদি বিক্রি করে জুয়ার টেবিলে বসে হেরে গিয়ে আবারও নিঃস্ব হয়।

তাদের খাদ্যের যোগান দিতে সেখানে একটি ভ্রাম্যমান দোকান বসে। বিশ্বস্ত সূত্রে পাওয়া তথ্যমতে প্রতিটি প্রশাসনিক দপ্তরকে ম্যানেজ করেই জুয়ার মহোৎসব চলে এখানে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার সুধিমহল’র দাবি কামাল চেয়ারম্যান, রনি সরকাররের নেতৃত্বে জুয়া খেলাটি হয়। তারা প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই খেলা চালায়। এতে অনেকে নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে বলে দাবি তুলেন তাঁরা। প্রতিদিন প্রায় অর্ধ কোটি টাকার মত এখানে গুঠি জুয়া খেলা হয়। ইউনিয়নের চৌকিদার থেকে শুরু করে থানা পুলিশ, ডিবি পুলিশ সহ প্রশাসনের লোকজন টাকা পয়সা নিয়ে এই খেলা চালায়।

এ ব্যাপারে আমাগাও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পাভেল তালুকদার জানান, আম বাগান বাড়ির জুয়ার খেলার ব্যাপারে উপজেলা আইন শৃঙ্খলা মিটিংয়ে আমি গত মাসে কথা বলেছি। এখন পর্যন্ত প্রশাসনিক কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। এখনও খেলা চলছে।

হরিপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রুহুল কুদ্দুস এ ব্যাপারে বলেন, এত কিছু থাকতে জুয়া খেলা নিয়ে নিউজ করবেন! হরিপুরে জুয়া খেলা কেউ কোনদিন বন্ধ করতে পারেনি আগামীতেও বন্ধ হবে কিনা সন্দেহ আমার। কারণ এখানকার মানুষ একটু সময় পেলেই জায়গা পরিবর্তন করে জুয়া খেলতে বসে এটা তাদের অভ্যাস। খবর পেলে তৎক্ষনাৎ আমি ব্যবস্থা গ্রহণ করি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: