রবিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাপ্পারাজ ও সম্রাটের হাতে নায়করাজের মরণোত্তর সম্মাননা  » «   সারাদেশে বিএনপির নতুন কর্মসূচি, যা থাকছে স্মারকলিপিতে  » «   সোমবার গাজীপুরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সবচেয়ে দূষিত বায়ুর দেশের তালিকায় দ্বিতীয় বাংলাদেশ  » «   খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড, যা বলেছে জাতিসংঘ  » «   মুশফিককে গুণীজন সম্মাননা দিলো জাবি  » «   মেক্সিকোতে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ১৪  » «   সরকারকে চাপে রাখতে যে সিদ্ধান্ত নিল বিএনপি  » «   তিন আত্মঘাতী কেড়ে নিল ১৯ জনের প্রাণ  » «   এইচএসসি পরীক্ষা ২০১৮ এর রুটিন পরিবর্তনের দাবিতে সিলেটে পরীক্ষার্থীদের মানববন্ধন  » «   বিয়ের কথা বলে টানা ৪ বছর ধর্ষণ!  » «   খালেদার জামিন ও রায়ের কপি নিয়ে নেতাদের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ  » «   আদালতে হাজির করা হবেনা খালেদা জিয়াকে  » «   আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হলো আঞ্চলিক ইজতেমা  » «   খালেদা জিয়ার জেল অস্বাভাবিক কিছু নয়  » «  

এগিয়ে থাকুন সৃজনশীলতায়



নিউজ ডেস্ক:: সৃজনশীলতায় একইসঙ্গে অর্থ, সম্মান ও পরিতৃপ্তি পাওয়া যায়। চমৎকার এ গুণটি গড়ে ওঠে প্রথমত মেধা দ্বিতীয়ত চেষ্টার সমন্বয়ে। পৃথিবীতে প্রত্যেক মানুষই মেধাবী। একেকজন একেক মাধ্যমে। কেউ গানে, কেউ কবিতায়, কেউবা আবার নিছক ভালো মানুষ হিসেবে অবদান রাখছেন প্রতিনিয়ত। তবে এমন কিছু সৃজনশীলতার সন্ধান পাওয়া যায়, যা সমৃদ্ধ পেশা হিসেবেও গ্রহণ করা যায় অনায়াসে। এমনকি অন্য পেশার পাশাপাশি চালানো যায় এ চর্চা।

খেলাধুলা ছাড়া ছোটবেলা কেটেছে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া অসম্ভব। একেকজন একেক খেলায় পারদর্শী। তাই পারদর্শীতা নিয়ে নেমে যান মাঠে! মনের আনন্দ আর শরীরচর্চার পাশাপাশি হয়ে যেতে পারেন তারকা খেলোয়াড়দের একজন। বিকেএসপি তো আছেই, প্র্যাকটিস করতে পারেন স্থানীয় স্টেডিয়াম বা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে। পড়াশোনার পাশাপাশি চলুক নিরন্তর সাধনা।
সংগীতচর্চা

গুনগুনিয়ে গান গাওয়া মানুষের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। সুরের মুর্ছনায় মৌলিকত্ব মেনে নিজেকে ঝালাই করুন। ছড়িয়ে পড়ুন দেশের হৃদয় থেকে হৃদয়ে। এছাড়া কাব্যগুণ থাকলে তো কথাই নেই। গীতিকবিতা লিখে নিজে অথবা অন্যদেরকে দিয়েও গান তৈরি করতে পারেন। রেডিও, টেলিভিশন, ইউটিউবে আপনার কথা আর সুরের জাদুতে আচ্ছন্ন থাকুক প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম।
ফটোগ্রাফি ও গ্রাফিক্স

বাস্তবভিত্তিক সৃজনশীল ভাবনা ক্যামেরায় ধারণ করা অথবা মনের মাধুরী মিশিয়ে ক্যানভাস রাঙানের সামান্যতম প্রতিভাও যদি থাকে, তাহলে ভাবনা কেন? অন্যের দৃশ্যকে আপনার দরদমাখা দৃষ্টিভঙ্গি দিয়ে উপস্থাপন করুন আজই। ফ্রেমের নিপূণ ছলাকলায় তাজ্জব বানিয়ে দিন সবাইকে। ঢাকার আর্ট গ্যালারি ছাড়াও বিভিন্ন ম্যাগাজিন বা অনলাইনভিত্তিক প্রতিযোগিতায় প্রদর্শন করতে পারেন আপনার ছবির কারসাজি।
সাহিত্যচর্চা

শিক্ষা জীবনে লেখালেখির অভ্যাস মোটামুটি ছিল। কিন্তু জীবন নদীর বাঁক চলে গেছে অন্যদিকে। হয়ে গেছেন চিকিৎসক। কিংবা প্রশাসনের লোক হিসেবে কুড়িয়েছেন বেশ সুনাম। তাতে কী! ফিরে আসুন লেখার টেবিলে। খোঁজ দিন অজানা জীবন-অধ্যায়ের। আপনার লেখা যদি অন্যের মনে আলোড়ন তোলে, তবে আর বসে থাকা কেন? অন্যপেশার পাশাপাশি লিখতে থাকুন পত্রপত্রিকা, সাময়িকী, অনলাইন বা ব্লগে। পেতে পারেন সম্মান ও সম্মানী।
ক্যাম্পাস তারকা

সৃজনশীল কর্মকাণ্ড দিয়ে হয়ে যান ক্যাম্পাস তারকা। নৃত্য, অভিনয়, বক্তৃতা, লেখালেখি না পারলেও এসবের সংগঠক হয়ে পরিচয় দিন সৃজনশীল সত্তার। ক্যাম্পাসে আয়োজন করুন বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। আর হয়ে যান তারকাদের তারকা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: