বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২ কার্তিক ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাংলাদেশে আরো সৌদি বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী  » «   কানাডায় প্রকাশ্যে গাঁজা বিক্রি শুরু, ক্রেতাদের ভিড়  » «   ৩৮৭ কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কার হবে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দর  » «   ৪০ ঘণ্টা পর মানারত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী দুই নারী জঙ্গির আত্মসমর্পণ  » «   পূজায় বিজিবিকে মিষ্টি পাঠিয়েছে বিএসএফ  » «   উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে ‘ট্রেনে কাটা’ পড়ে মৃত্যু  » «   আত্মসমর্পণের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছে না জঙ্গিরা  » «   শিশু জয়নাব ধর্ষণ-হত্যা : ইমরানের ফাঁসি কার্যকর  » «   ‘বেত ও বেলুন দিয়ে মারে,পরে নখে সুই ঢুকিয়ে মাথার চুল কেটে দেয়’  » «   বউকে বৃষ্টিতে ফেলে ছাতা মাথায় ট্রাম্প!  » «   ঋণের পরিবর্তে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব ব্যাংক ম্যানেজারের,অতঃপর..  » «   খাশোগি নিখোঁজ, বেনিফিট অব ডাউটের সুবিধা পাচ্ছে সৌদি  » «   নিরাপদ খাদ্যে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি: ক্যাব সভাপতি  » «   শাবিপ্রবি’র ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ  » «   আত্মসমর্পণ না করলে ‘নিলুফা ভিলায়’ অভিযান আজ  » «  

এক টুকরো বরফে দূর হবে মানসিক চাপ



লাইফ স্টাইল ডেস্ক:: ঘাড়ের পেছনে একটি বিশেষ প্রেসার পয়েন্ট আছে।আর সেই বিশেষ পয়েন্টে ১ টুকরো বরফ কিছুক্ষণ ধরে রাখতে পারলে শরীরের নানা সমস্যা দূর করে দিতে পারে নিমেষেই। যেমন:

১) হজম সংক্রান্ত সমস্যা,
২) ঘুম সংক্রান্ত সমস্যা,
৩) মানসিক চাপ,
৪) ঠাণ্ডা লাগা বা সর্দি-কাশির সমস্যা,
৫) মাথাব্যথা, দাঁতে ব্যথাসহ শারীরিক নানা দীর্ঘমেয়াদী ব্যথার সমস্যা,
৬) শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা এবং কার্ডিওভ্যস্কুলার সমস্যা,
৭) থাইরয়েড সমস্যা,
৮) মেয়েদের মাসিকের সমস্যার সমাধানে আমাদের ঘাড়ের পেছনে একটি বিশেষ প্রেসার পয়েন্টে কিছুক্ষণ ধরে রাখতে হবে ১ টুকরো বরফ। এ বার জেনে নেওয়া যাক এর পদ্ধতি সম্পর্কে।

পদ্ধতি:
উপরের ছবিটি লক্ষ্য করুন। ঘাড়ের ঠিক মাঝখানের যে পয়েন্টে নির্দেশ করা রয়েছে এই পয়েন্টটাই প্রধান।এই অংশটির নাম ফেং ফু।এই পয়েন্টটি খুঁজে বের করার পর ১ টুকরো বরফ এই পয়েন্টে ধরে রাখুন।২০ মিনিট এই পয়েন্টে বরফের টুকরো ধরে রাখুন।সকালে খাওয়ার আগে এবং রাতে ঘুমুতে যাওয়ার আগে এই কাজটি করুন। তবে শুরুতেই ২০ মিনিট বরফ ধরে রাখা হয়তো সম্ভব হবে না।তাই প্রথম কয়েকটা দিন ৩০-৪০ সেকেন্ড বরফ ধরে ধরে রাখতে পারলেই হবে।খেয়াল করবেন,এই পয়েন্টে কিছু ক্ষণ বরফ ধরে রাখার পর কিছুটা উত্তাপ অনুভূত হবে।নিয়মিত এই পদ্ধতি পালনে শারীরিক সমস্যার পাশাপাশি মানসিক ভাবেও সুস্থতা বোধ করবেন।

সূত্র: জি নিউজ

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: