সোমবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জেলা হাসপাতালের ৪০ শতাংশ চিকিৎসকই অনুপস্থিত : দুদক  » «   লিবিয়ায় নিয়ে নির্যাতন, মুক্তিপণ বাণিজ্য  » «   ২১ আগস্ট হামলা: সাবেক দুই আইজিপির জামিন  » «   নাইকো মামলার পরবর্তী শুনানি ৪ ফেব্রুয়ারি  » «   ডাকাতি চেষ্টার অভিযোগে এসআই আটক  » «   শরিকদের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে আ.লীগের  » «   মালিতে জঙ্গি হামলায় জাতিসংঘের ১০ শান্তিরক্ষী নিহত  » «   ঘুষ নেয়ার মামলায় জামিন পেলেন নাজমুল হুদা  » «   আওয়ামী লীগ জনগণের আস্থার মর্যাদা রাখবে: প্রধানমন্ত্রী  » «   নৌবাহিনীর প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেলেন আওরঙ্গজেব চৌধুরী  » «   আফগানিস্তানে গভর্নরের গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলা: নিহত ৮  » «   ফেসবুকে ‘#বিদায়’ স্ট্যাটাস দিয়ে তরুণের আত্মহত্যা!  » «   স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গিয়ে যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী  » «   আরও ২৫০ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাচ্ছে সৌদি আরব  » «   ২৭ বছর থেকে নির্বাচনবিহীন এমসি কলেজ ছাত্র সংসদ  » «  

একটি নয়, পৃথিবীর চাঁদের সংখ্যা তিনটি!



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:: একটি নয়, পৃথিবীর চাঁদ আসলে তিনটি! তবে আমাদের চেনা চাঁদের মত নয় বাকি দু’টি। তারা তৈরি হয়েছে মহাজাগতিক ধুলো দিয়ে।

‘ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, হাঙ্গেরির জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা প্রমাণ করেছেন অন্য দুই চাঁদের অস্তিত্ব। মান্থলি নোটিশেস অব রয়্যাল অ্যাস্ট্রনমিক্যাল সোসাইটিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সেই রহস্যময় চাঁদের মধ্যে একটির ছবি তাঁরা তুলতে সক্ষম হয়েছেন। সেই সময় ওই চাঁদটির দূরত্ব পৃথিবী থেকে আড়াই লক্ষ মাইল ছিল।

তবে এই প্রথম নয়, আজ থেকে বহু বছর আগেই এমন দাবি শোনা গিয়েছিল। ১৯৬১ সালে পৃথিবীর আরও চাঁদ থাকার কথা ঘোষণা করেছিলেন পোল্যান্ডের এক জ্যোতির্বিজ্ঞানী কোর্দিলিউস্কি।

জানা যাচ্ছে, ওই দু’টি চাঁদ পৃথিবীকে নির্দিষ্ট সময় অন্তর প্রদক্ষিণ করে চলেছে।এই চাঁদ বা ঘন ধুলোর মেঘদের বলা হয় কোর্ডলিউয়েস্কি মেঘ। এই দুই চাঁদ আকারে খুব বড় হলেও যেহেতু ধূলিকণা দিয়ে তৈরি, তাই তাদের ওজন সামান্য।

সূর্যের আলো পড়লে তাদের পিঠ থেকে আলো প্রতিফলিত হয়। কিন্তু খুবই ক্ষীণ সেই প্রতিফলন। সেই কারণেই আকাশের বুকে তাদের দেখতে পান না পৃথিবীবাসীরা। তারার আলো, আকাশের ঔজ্জ্বল্য ইত্যাদির ভিড়ে হারিয়ে যায় সেই সামান্য আলো। তবে এখনও পর্যন্ত তাদের একটিকেই দেখতে পাওয়া গিয়েছে। অন্যটির দেখাও শিগগির মিলবে, এমনটাই আশা বিজ্ঞানীদের।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: