মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ আশ্বিন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
পর্নোগ্রাফির মামলা নিয়ে ভাবছেন না কুসুম শিকদার  » «   ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত আশরাফুল  » «   ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান পরিচয় দিয়ে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরী  » «   মানববন্ধনে রিজভীচাল নেই: সরকারি গোডাউনে ইঁদুর খেলা করছে  » «   নতুন বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন ময়ূরী  » «   ‘যৌন নিপীড়ন বন্ধে বাংলাদেশ জিরো টলারেন্স নীতি নিয়েছে’  » «   মৌলভীবাজারে অং সান সুচির কুশপুত্তলিকা দাহ  » «   ইংলিশ মিডিয়ামে পড়ুয়াদের অভিভাবকের নাম অন্তর্ভুক্তি চেয়ে রিট  » «   পদ্মায় নিখোঁজ কনস্টেবলের মরদেহ ২৪ ঘন্টায় উদ্ধার হয়নি  » «   রাজধানীর পানিতে ঝুঁকিপূর্ণ জীবন  » «   উপজেলা পর্যায়ে চালু হচ্ছে ওএমএস  » «   ‘মধ্যরাতে আমাকে ঘিরে ধরে মাতালেরা, এরপর শুরু করে…’  » «   ভদ্র চালকদের জন্য পুরস্কার  » «   শাহজালালে সিগারেটসহ ৬ ভারতীয় নাগরিক আটক  » «   ৮ সন্তানকে আনতে পেরেছি আরেকজন জেলে  » «  

একটি আমের জন্য প্রতিবেশীকে পিটিয়ে হত্যা!



বগুড়া প্রতিনিধি:বগুড়ার ধুনট উপজেলায় একটি আম পাড়ার অপরাধে গাছ মালিক ও তার লোকজন শুকুর আলী (৪৮) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। নিহত শুকুর আলী উপজেলার চকডাকাতিয়া গ্রামের জসের আলীর ছেলে।

সোমবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার গোপালনগর ইউনিয়নের রানডিলা আতাউল্লাহ গ্রামে হামলাডাঙ্গা বিলের ধারে রাস্তার ওপর এ ঘটনা ঘটে।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুকুর আলী সোমবার সকালের দিকে নিজ বাড়ি থেকে রানডিলা আতাউল্লাহ গ্রাম হয়ে সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ উপজেলার ব্রক্ষ্রগাছা বাজারের দিকে রওনা হন। পথিমধ্যে রানডিলা আতাউল্লাহ গ্রামের শফিকুল ইসলামের বাড়ির গাছ থেকে একটি আম পাড়েন শুকুর আলী।

এসময় শফিকুল ইসলামের কিশোরি মেয়ে ষষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী স্বর্না খাতুন আম পাড়ার অপরাধে শুকুর আলীকে গালিগালাজ করে। এতে শুকুর আলী ক্ষুদ্ধ হয়ে স্বর্না খাতুনকে চড়-থাপ্পড় মারে। শুকুর আলীর মারধরে স্বর্না খাতুন উচ্চ স্বরে কাঁদতে থাকে। এ দৃশ্য দেখে স্বর্নার ভাই শাহাদৎ হোসেন ও একই পরিবারের অন্যন্য সদস্যরা বাড়ির পাশে কাঁচা রাস্তার ওপর শুকুর আলীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে।

ঘটনার পর থেকে শফিকুল ও শাহাদৎ হোসেনের পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে। এদিকে, এক সপ্তাহ আগে বাবার (শফিকুল) বাড়িতে নাইওরে আসা সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, গাছ থেকে আম পাড়ার কথা বলায় শুকুর পাগলা আমার ছোট বোন স্বর্না খাতুনকে মারধর করে। তাই আমার চাচা ও পরিবারের লোকজন শুকুর আলীকে শাসন করার জন্য মারধর করেছে। কিন্ত শুকুর আলী আগে থেকেই হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন। তাই সামান্য আঘাতেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

হত্যার উদ্দেশ্যে তাকে মারধর করা হয়নি। নিহত শুক্রর আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম বলেন, ব্রক্ষ্রগাছা বাজারে যাওয়ার কথা বলে সকালের দিকে বাড়ি থেকে বের হন আমার বাবা। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে বাবার মৃতদেহ দেখতে পাই।

তবে, প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্যমতে সামান্য অপরাধে শাহাদৎ, শফিকুল ও তার পরিবারের লোকজন পরিকল্পিত ভাবে আমার বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, আম পাড়াকে কেন্দ্র করে গাছ মালিকের লাঠির আঘাতে শুকুর আলী নিহত হন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: