সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
শুধুমাত্র আইন দিয়ে দুর্নীতি দমন করা যায় না: আইনমন্ত্রী  » «   জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ  » «   সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জা‌নি‌য়ে মোদিকে শেখ হাসিনার বার্তা  » «   গুগলে ‘টয়লেট পেপার’ লিখলে আসছে পাকিস্তানের পতাকা  » «   পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে ভারত?  » «   সাত বছরে ৬৩ বার পেছালো সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন  » «   তিন দিনের সীমান্ত সম্মেলনে বিএসএফ প্রতিনিধিদল বাংলাদেশে  » «   বড় রাজনৈতিক দল অংশ না নেওয়া ইসির জন্য হতাশাজনক: সিইসি  » «   পাকিস্তানকে কী করতে পারবে ভারত?  » «   বঙ্গবীর ওসমানীর জন্ম-মৃত্যুবার্ষিকী রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের দাবি  » «   দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ায় সা’দপন্থীদের ইজতেমা শুরু  » «   মোদির স্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না, পাল্টা হুঙ্কার পাকিস্তানের  » «   চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার খবরটি ‘টোটালি ফলস’  » «   শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী  » «   জামায়াত নতুন নামে পুরনো চরিত্রে ফিরে আসে কিনা তা ভাবনার বিষয়  » «  

একই সঙ্গে তিন ছাত্রীকে ধর্ষণ!



নিউজ ডেস্ক::পার্বত্য জেলা খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলায় মারমা সম্প্রদায়ের ১০ম শ্রেণির তিন স্কুল ছাত্রীকে একই সঙ্গে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৯ মে) রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- সাটিং মারমা, থুইচিং মারমা, সাইফুল মারমা ও হৃদয় চাকমা।

এ ব্যাপারে মহালছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আলম ফকির বলেন, প্রচণ্ড গরমে মঙ্গলবার (২৯ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে মহালছড়ি উপজেলার মাইচছড়ির মানিকছড়ি মুখ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে তিন বান্ধবী বসেছিল। এ সময় ওই এলাকার একই সম্প্রদায়ের ৪ জন যুবক তাদের ভয়ভীতি দেখিয়ে পাশের একটি সেগুন বাগানে নিয়ে যায়। এরপর তাদের মধ্যে তিন জন ধর্ষণ করে। অপর যুবক তাদেরকে পাহারা দেয়। সেখান থেকে একজন ধর্ষিতা পালিয়ে এসে গ্রামবাসীকে তা জানিয়ে দেয়। এরপর গ্রামবাসী ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ধর্ষকরা পালিয়ে যায় এবং অপর দুই ধর্ষিতাকে উদ্ধার করা হয়।

পরে ভুক্তভোগী নির্যাতনের শিকার ওই তিন ছাত্রীর বাবারা থানায় মামলা করলে পুলিশ মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে অভিযান চালিয়ে ধর্ষকদের আটক করে। আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

ওসি নুরে আলম ফকির আরো জানান, ধর্ষিতাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: