শনিবার, ৬ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Sex Cams
সর্বশেষ সংবাদ
পানিতে দাঁড়িয়েই কয়রাবাসীর ঈদের নামাজ  » «   ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের রেকর্ড, মৃত্যু ৫০০ ছাড়ালো  » «   ফিনল্যান্ডে ভিন্ন আবহে ঈদ উদযাপন  » «   উপকূলে আমফানের আঘাত  » «   করোনা চিকিৎসায় ইতিবাচক ফলাফল দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা  » «   করোনার টিকা আবিষ্কারের দাবি ইতালির বিজ্ঞানীদের  » «   জেলে করোনা আতঙ্কে প্রিন্সেস বাসমাহ  » «   ঘুষের প্রশ্ন কিভাবে আসে, বললেন ওষুধ প্রশাসনের ডিজি  » «   কিশোরগঞ্জে এবার করোনায় সুস্থ হলেন চিকিৎসক  » «   স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অজ্ঞতাবশত ভুল বলিয়াছে: ডা. জাফরুল্লাহ  » «   বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে  » «   ফ্রান্সে টানা চতুর্থদিন মৃত্যুর রেকর্ড, ৪ হাজার ছাড়াল প্রাণহানি  » «   সিঙ্গাপুরে আরও ১০ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত  » «   মিশিগানের হাসপাতালে আর রোগী রাখার জায়গা নেই  » «   ৩ হাসপাতাল ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু  » «  

উপজেলা নির্বাচন: হবিগঞ্জ আ.লীগের ১০ বিদ্রোহী প্রার্থীকে শোকজের চিঠি



নিউজ ডেস্ক:: বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যারা আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন তাদের নামে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রেরণ করা শুরু হয়েছে। প্রথম দফায় ১৭৭ জনকে রেজিস্ট্রি ডাকযোগে এই কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রেরণ করা হয়। এর মাঝে হবিগঞ্জেরও কয়েকজন চিঠি পেয়েছেন বলে জানা গেছে। এক্ষেত্রে যারা বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তারাও রেহাই পাননি।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন জানান, নির্বাচিত যারা হয়েছেন তাদের নামেও কারণ দর্শানোর নোটিশ ইস্যু করা হয়েছে। নির্বাচনে অংশ নিয়ে দলের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কাজ করেছেন তারা। তাই কাউকেই রেহাই দেওয়া হবে না। দশ দিনের ভিতরে সন্তোষজনক জবাব না দিলে অরো কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে। কাউকেই রেহাই দেওয়া হবে না। এদিকে বিগত নির্বাচনে হবিগঞ্জ জেলার নয়টি উপজেলায় ১০ জন বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেন।

তারা হলেন- লাখাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহফুজুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য রফিক আহমেদ, হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সাধারণ সম্পাদক মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, নবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সেলিম চৌধুরী, বাহুবল উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি আব্দুল কাদির চৌধুরী, বানিয়াচং উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন খান, আজমিরীগঞ্জ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আলা উদ্দিন, চুনারুঘাট উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, শায়েস্তাগঞ্জে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আলী আহমদ খান ও মাধবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা এহতেশামুল বর চৌধুরী লিপু।

টেলিফোনে এ সকল বিদ্রোহী প্রার্থীদের বেশ কয়েকজনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা বলেছেন- এখনও চিঠি পাননি। তবে দুয়েকজন পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: