শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল সংসদে ফেরত পাঠানোর আহ্বান  » «   কোনো বইকে নিষিদ্ধ করা ঠিক নয় : অর্থমন্ত্রী  » «   সিলেটে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধে লাল কার্ড প্রদর্শন ও মানববন্ধন  » «   ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠক হবে প্রধানমন্ত্রীর  » «   কাশ্মীর বিদ্রোহী নেতার নামে পাকিস্তানের ডাকটিকিটি প্রকাশ  » «   সংসদ নির্বাচনে হুমকি ‘সাইবার ক্রাইম’, গুজব ঠেকাতে সজাগ পুলিশ  » «   তাঞ্জানিয়ায় ফেরি ডুবি, নিহত বেড়ে ১৩৬  » «   আইনগত অনুমোদন পেলেই সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার: সিইসি  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের কার জন্য কত টাকা গৃহঋণ  » «   গণেশের ছবি দিয়ে বিজ্ঞাপন: হিন্দুদের কাছে ট্রাম্পের দলের দুঃখ প্রকাশ  » «   প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলো কোটা বাতিলের সুপারিশ  » «   রেলের আধুনিকায়নে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  » «   কেন মুনকে বিশেষ সেই ‘পবিত্র পর্বতে’ নিয়ে গেলেন কিম?  » «   সুখোই কিনলে ভারতকেও নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে!  » «   প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের পথে লন্ডন পৌঁছেছেন  » «  

‘উদ্যোগ ব্যর্থ হলে স্বাধীনতা-সাবভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে’



2. manobbondonনিউজ ডেস্ক::
নাগরিক সমাজের উদ্যোগ ব্যর্থ হলে দেশের স্বাধীনতা সাবভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করেছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার (অব:) এম সাখাওয়াত হোসেন। বলেছেন, নাগরিক সমাজ এগিয়ে এসে যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা ব্যর্থ হলে পরিণত ভয়াবহ হবে।
আজ শনিবার দুপুর পৌঁনে ১২টার দিকে রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এ উদ্বেগের কথা জানান। ‘শান্তি-সম্প্রতি ও সমঝোতার’ দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে সুজন। সাখাওয়াত হোসেন বলেন, “রাজনীতিবিদরা যখন সমস্যা সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছেন, তখন নাগরিক সমাজ এগিয়ে এসে উদ্যোগ নিয়েছে। সরকার ও বিএনপির উচিত এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে একটি সমঝোতায় আসা। না হয় দেশের স্বাধীনতা-সাবভৌমত্ব বিপন্ন হয়ে যাবে। পরিণতি ভয়াবহ হবে।”

রাজনীতি ক্রমেই রাজনীতিবিদদের হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে এই সাবেক নির্বাচন কমিশনার বলেন, এই অবস্থা চলতে থাকলে অচিরেই পুরোপুরি রাজনীতি রাজনীতিবিদদের হাতছাড়া হয়ে যাবে, যা দেশের জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে না।”

সুজনের সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদার বলেন, “সারা দেশে রাজনীতির নামে মৃত্যুর কাফেলা চলছে। আর এই মৃত কাফেলায় দগ্ধ হয়ে মরছে সাধারণ মানুষ। আমরা এই অচলাবস্থায় দ্রুত সমাধান চাই। এর সমাধানের জন্য জরুরি একটি সংলাপ প্রয়োজন। সংলাপকে ফলপ্রসু করতে দুই দলকে এগিয়ে আসতে হবে।” তবে এ ক্ষেত্রে সরকারকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
রাষ্ট্রপতির কাছে সংলাপ আয়োজনের উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়ে বদিউল আলম বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার ও নির্বাচনী ব্যবস্থার টেকসই সমাধানের জন্য একটি জাতীয় সনদের কোনো বিকল্প নেই।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন তত্ত্ববধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজ উদ্দিন খান, সিপিবির কেন্দ্রীয় নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্স, সুজনের নির্বাহী সদস্য ড. হামিদা হোসেন, গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: