বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

ইন্দিরা গান্ধী, মের্কেল, থ্যাচারদের ছাড়িয়ে শীর্ষে শেখ হাসিনা



নিউজ ডেস্ক:: আরও একবার বিশ্ব ইতিহাসে বাংলাদেশ ও নিজের নাম যুক্ত করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী নেতৃত্বের নতুন দৃষ্টান্ত, দেখিয়ে দিলেন পুরো বিশ্বকে। আন্তর্জাতিক সংস্থা উইকিলিকসের জরিপের এই তথ্য প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম ইউনাইটেড নিউজ অব ইন্ডিয়া।

এতে বলা হয়, শক্তিশালী নেতৃত্ব, দক্ষতা আর দুরদর্শী চিন্তার মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নেয়ার পাশাপাশি বিশ্বে নারী পুনরুত্থানের প্রতীকও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।

ভারতের ইন্দিরা গান্ধী, ব্রিটেনের মার্গারেট থ্যাচার ও শ্রীলংকার চন্দ্রিকা কুমারাতুঙ্গের রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকার রেকর্ড ভেঙ্গে দেন শেখ হাসিনা। নারী রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে রাজনৈতিক চিন্তাধারা, দুরদর্শিতা সঙ্গে যুক্ত করেছেন মানবতাকে। টানা তৃতীয়বারসহ চারবার বাংলাদেশের সরকার প্রধান শেখ হাসিনা।

৭৫ এর ১৫ আগস্টের পর ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। এরপর ৭ বছর সরকারে ছিল না দলটি।২০০৮ এ আবারও ক্ষমতায় শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগ।প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পূর্ণ করেছেন ১৫ বছর। চতুর্থ দফায় সরকারে থাকার পালা এখনও বাকি।

সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়, নারী হিসেবে শেখ হাসিনার মতো এতো দীর্ঘ সময় আধিপত্য নিয়ে আর কেউ রাষ্ট্র ক্ষমতায় ছিলেন না। তার এই প্রাপ্তি নারী নেতৃত্বে নতুন দিক নির্দেশনার পাশাপাশি দেশকেও নতুন সম্ভাবনার দিকে নিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: