শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

ইনোসেন্স অব মুসলিমসের জেরে মিসরে ইউটিউব বন্ধের নির্দেশ



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:: ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ইউটিউব মিসরে এক মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির শীর্ষ একটি প্রশাসনিক আদালত। মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (স.) অসম্মান করে নির্মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য একটি চলচ্চিত্র ইউটিউবে রাখার ঘটনায় করা মামলায় কয়েক বছর ধরে চলমান আপিল প্রক্রিয়া শেষে শনিবার এ নির্দেশ এলো। মিসরের বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে গালফ নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

মহানবীকে অসম্মান করে নির্মিত ‘ইনোসেন্স অব মুসলিম’ চলচ্চিত্রটি ইউটিউব থেকে মুছে না ফেলায় ২০১৩ সালে ইউটিউব ব্লক করে দেয়ার নির্দেশ দেন মিসরের নিম্ন আদালত। পরে আদালতের এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে মিসরের জাতীয় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকে এত দিন আপিলের বিষয়টি চলমান ছিল।

ইনোসেন্স অব মুসলিম ইউটিউবে প্রচারের পর মধ্যপ্রাচ্যে বিক্ষোভের দাবানল ছড়িয়ে পড়ে। যুক্তরাষ্ট্রবিরোধী এ বিক্ষোভ কর্মসূচিতে ৩০ জনেরও বেশি লোকের প্রাণহানি ঘটে।

পরে যুক্তরাষ্ট্র বলে এটি নির্মাণে সরকারি কোনো সহযোগিতা করা হয়নি এবং বিদ্যমান বাকস্বাধীনতার আইনের কারণে এ ধরনের ভিডিও নির্মাণ বন্ধ করা যাবে না।

ইউটিউব বন্ধের বিষয়ে আপিলে মিসরের আদালত শনিবার যে রায় দিয়েছেন তা চূড়ান্ত। এ রায়ের বিরুদ্ধে আর আপিল করা যাবে না। তবে আদালত ইউটিউব বন্ধের বিষয়ে রায় দিলেও শনিবার বিকেল পর্যন্ত কায়রোতে ইউটিউব সচল দেখা গেছে।

সূত্র: গালফ নিউজ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: