রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বাংলাদেশকে বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে : ওবায়দুল কাদের  » «   নিজস্ব ভবন পেল আওয়ামী লীগ  » «   বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ : শুরু হচ্ছে নিয়ন্ত্রণ হস্তান্তরের কাজ  » «   ‘রাতের অন্ধকারে বছরের পর বছর ধর্ষণ করেছে বাবা’  » «   প্রধানমন্ত্রীর উপলব্ধি যথার্থ : রিজভী  » «   স্কুলের গেটে জলাবদ্ধতা, ছাত্রদের সড়ক অবরোধ  » «   তানোরে পুলিশের স্ত্রীর আত্মহত্যা  » «   কুমিল্লায় যুবকের গলা কাটা লাশ উদ্ধার  » «   সরিষাবাড়ীতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু  » «   শ্রীপুরের বাড়িটিতে ৪টি বোমার বিস্ফোরণ  » «   প্রেমিকের খোঁজ নিতে গিয়ে প্রেমিকার করুণ পরিণতি!  » «   সমকামী বিয়ে ব্রিটিশ রাজ পরিবারে  » «   এবার বিমানেও ভিক্ষাবৃত্তি!  » «   প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিদায়ী সেনা প্রধানের সাক্ষাৎ  » «   মিয়ানমারকে আল্টিমেটাম  » «  

ইতালিতে ফেসবুকে পরিচয় অতঃপর বিয়ে



প্রবাস ডেস্ক:: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেলে-মেয়েদের বন্ধুত্ব হওয়াটা স্বাভাবিক। এ বন্ধুত্ব থেকে অনেকেই আবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। এরকমই একটি ঘটনার জন্ম দিয়েছেন ইতালি প্রবাসী দুই বাংলাদেশি সুহেদ-রাসেদা।

দীর্ঘ তিন বছর বন্ধুত্বের পর গত ২৪ ডিসেম্বর ভেনিসের একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টে জীবনসঙ্গী হিসেবে আবদ্ধ হয়েছেন সুহেব আহমেদ ও রাসেদা।

সুহেব মিলানে বাস করেন; বাড়ি সিলেটের জালালাবাদ উপজেলার মোগলগাঁও ইউনিয়নে। বাবা সামসুদ্দোহা ও মা সুফিয়া বেগম।
অপরদিকে রাসেদা আহমেদ বসবাস করেন ভেনিস শহরে। বাড়ি শরিয়তপুরের নড়িয়া ইউনিয়নে। পিতা সোরাফ হাওলাদার।

বিয়ের ব্যাপারে রাসেদার বড় ভাই ইসমাইল হোসেন স্বপন জানান দীর্ঘদিন আগে একে অপরের সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে প্রথমে বন্ধুত্ব ও পরে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ব্যাপারটি জানাজানি হলে উভয় পারিবারের মতামতে বিয়ের সিদ্ধন্ত চূড়ান্ত হয়। এরপর ২৪ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।
বিয়ের ব্যাপারে সুহেদ বলেন, আমি খুবই সুখী ভালোবাসার মানুষটিকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়ে। তিনি আরও বলেন মন থেকে ভালোবাসলে তা কখনও বিফলে যায় না।

কনে রাসেদা বলেন, পৃথিবীতে আমার মত আর কেউ সুখী নেই। যাকে ভালোবেসেছি তাকে বিয়ে করেছি। আমরা সংসার জীবনে সুখী হতে সবার কাছে দোয়া চাই।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: