রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ আষাঢ় ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না থাকায় ভালো নেই সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের মানুষ  » «   সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যা ‘অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু’: বিএসএফ মহাপরিচালক  » «   সর্বোচ্চ চেষ্টা’ করেও ওসি মোয়াজ্জেমকে ধরতে পারছে না পুলিশ  » «   পৃথিবীর ইতিহাসে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড কুয়েতে  » «   রোহিঙ্গা সংকট সমাধান না হলে অস্থিতিশীল হবে এশিয়া: রাষ্ট্রপতি  » «   অবশেষে ইমরান-মোদির সৌজন্য সাক্ষাৎ  » «   এমপিও পাবেন মাদরাসার সাড়ে ২১ হাজার শিক্ষক  » «   বাজেট সমালোচকদের যে গল্প শোনালেন প্রধানমন্ত্রী  » «   সুনামগঞ্জে পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য ঠেকাতে প্রতিবাদ  » «   পশ্চিমবঙ্গে থাকতে হলে বাংলায় কথা বলতে হবে: মমতা  » «   ইকোসকে বিপুল ভোটে জয় পেল বাংলাদেশ  » «   মোবাইলে ১০০ টাকার কথা বললে ২৭ টাকা কেটে নেবে সরকার  » «   সাক্ষ্য দিতে চাওয়ায় প্রাণটাই কেড়ে নিল আসামিরা  » «   পশ্চিমবঙ্গকে বাংলাদেশ নয়; গুজরাট বানানো ভাল : দিলীপ ঘোষ  » «   বাজেটের প্রভাব: দাম বাড়বে যেসব জিনিসের  » «  

আশ্রয়দাতা বাবাকে কিডনি দান করলেন পালিতা মেয়ে



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ছোট্ট এক মেয়েকে ২৭ বছর আগে একটি অনাথ আশ্রম থেকে নিয়ে এসে তাকে নতুন জীবন দিয়েছিলেন বিল্লি হাউস। পেশায় তিনি একজন ধর্ম যাজক। বড় করেছিলেন মেয়ের মতোই আদর-যত্ন-ভালবাসায়।

এবার সেই পালক পিতাকেই নতুন জীবন ফিরিয়ে দিলেন পালিতা মেয়ে ডি’লরেন ম্যাকনাইট। রক্তের সম্পর্ক না থাকলেও,দু’জনের রক্তের গ্রুপ ছিল একদম এক।ঘটনাটি আমেরিকার নর্থ ক্যারোলিনার।বিল্লি হাউসের কিডনির সমস্যা ধরা পড়ে ২০১৬ সালে। ডাক্তাররা তাকে জানান যে, অবিলম্বে কিডনি প্রতিস্থাপন না করলে পাঁচ বছরের বেশি আয়ু নেই তার। তারপর থেকেই শুরু হয় কিডনির খোঁজ।

কিন্তু কোথাও একই রক্তের গ্রুপের কিডনি না মেলায় সমস্যা বাড়তে থাকে। হতাশ হয়ে পড়েন ৬৪ বছরের বিল্লিও। তারপরেই পালিতা মেয়ে লরেন সিদ্ধান্ত নেন, বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসবেন তিনিই।

একটি মার্কিন টেলিভিশন শোয়ে বিল্লি জানান, তিনি মেয়েকে নিয়ে ভীষণই গর্বিত। এই ধরণের আত্মত্যাগ সচরাচর নিজের জীবন ও কেরিয়ারের ঝুঁকি নিয়ে আজকাল খুব বেশি করতে দেখা যায় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। লরেনের এই সিদ্ধান্তই তাকে নতুন করে জীবন দেখতে ও জীবনবোধ তৈরি করতে সাহায্য করেছে বলেও জানান তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: