সোমবার, ২১ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
একাদশ সংসদ নির্বাচন : বিএনপিকে নিয়ে দুই কৌশল আ’লীগের  » «   সিলেট পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক  » «   মন্ত্রী-সচিবরা পাবেন ৭৫ হাজার টাকার মোবাইল  » «   রাজধানীতে নিরাপত্তা কর্মীকে খুন করে টাকা লুট  » «   চুয়াডাঙ্গার মাদক সম্রাট ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত  » «   বাসের চাপায় হাত হারিয়ে নিহত : রাজীবের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ মঙ্গলবার  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য খুলনার ভোটারদের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ তামাশা’  » «   অবশেষে খোঁজ পাওয়া গেল সৌদি যুবরাজের!  » «   সাদা চাদরে ‘সতীত্বের পরীক্ষা’ দিতে হলো না ঐশ্বর্যকে  » «   অপুর ঘরে কোন ধর্মে বেড়ে উঠছে আব্রাম?  » «   কে হচ্ছেন ব্রাজিলের মূল স্ট্রাইকার?  » «   হবিগঞ্জে পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ১০  » «   বান্দরবানের মাটিচাপায় নিহত ৪, নিখোঁজ ১  » «   তিন মামলায় খালেদার জামিন শুনানি আজ  » «   লজ্জায় মানুষ না খেয়ে থাকার কথা বলতে পারে না —————————- : মোমিন মেহেদী  » «  

আশুলিয়ায় বাসে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে চালক খুন



নিউজ ডেস্ক::টাঙ্গাইল থেকে ঢাকাগামী যাত্রীবাহী বাস আশুলিয়ায় ডাকাতের কবলে পড়ে ছুরিকাঘাতে চালক খুন হয়েছে। এসময় ডাকাতের হামলায় বাসের হেলপার ও সুপারভাইজার গুরুতর জখম হন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে যাত্রীবাহী বাসটি।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ভোরে নবীনগর চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার শ্রীপুর এলাকায় বাসের ভিতর থেকে শাজাহান নামে চালকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে বাসটি উদ্ধার করা হলেও ডাকাত সদস্যদের আটক করতে পারেনি পুলিশ।

নিহত শাহজাহান টাঙ্গাইল সদর জেলার চরজানা গ্রামের মৃত বিশা মিয়ার ছেলে। এছাড়া আহত গাড়ির হেলপার টাঙ্গাইল সদরের বিশ্বাস বেতকা গ্রামের মৃত মীর সানোয়ার হোসেনের ছেলে বাদশা মিয়া ও সুপারভাইজার শহিদুল খান টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর থানার পাছতা গ্রামের মৃত ইবাদাত খানের ছেলে।

আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. ওবায়দুল ইসলাম (ইন্টিলিজেন্স এন্ড কমিউনিটি পুলিশি) বিষয়টি নিশ্চিত করে হেলাপার ও সুপারভাইজানের বরাত দিয়ে জানান, গত রাতে ঢাকা টাঙ্গাইল ধলেশ্বরী পরিবহনের একটি বাস যাত্রী নিয়ে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। এসময় টাঙ্গাইলের মির্জাপুর থেকে ১০/১২ ডাকাত সদস্য যাত্রীবেশে বাসে উঠে। ডাকাত সদস্যরা বাসটি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু চালক তাদেরকে বাসের চাবী দিতে অস্বীকৃতি জানায়।

এসময় চালক ও হেলপারকে বাসের পিছনের সিটে বেধে রাখে ও ছুরি দিয়ে আঘাত করে। পরবর্তীতে বাসটি নবীনগর চন্দ্রা মহাসড়কের আশুলিয়ার শ্রীপুর এলাকায় নিয়ে আসে ডাকাত সদস্যরা। পরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে যাত্রীদের কাছ থেকে লুটপাট করে তারা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে বাসটি পুলিশ উদ্ধার করে। এসময় বাসে পিছনের সিট থেকে চালক শাহজাহান মিয়ার, সুপারভাইজার শহিদুল ও হেলপার বাদশা মিয়াকে উদ্ধার করে স্থানীয় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক শাহজাহান মিয়াকে মৃত ঘোষণা করে। এছাড়া আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাসের হেলপারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সুপারভাইজারকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তবে এঘটনায় ডাকাত সদস্যদের আটক করা সম্ভব হয়নি। তাদের আটকের জন্য অভিযান চলছে।

তিনি আরও জানান, কয়েকজন যাত্রী থাকলেও তারা ভয়ে যে যার মতো চলে গেছেন। তাদের বিষয়েও খোঁজ নেয়া হচ্ছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এছাড়া আশুলিয়া থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: