মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
‘সে যে এত বড় প্রতারক, তা আমার জানা ছিল না’  » «   ছাত্রের সঙ্গে শিক্ষিকার অন্তরঙ্গ ছবি, ফেসবুকে তোলপাড়!  » «   বিশ্বকাপ সরাসরি দেখাবে যেসব টিভি চ্যানেল  » «   নিজের ঘরের মাদক ব্যবসায়ীদের ধরুন  » «   সেলিমা রহমানসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি  » «   একাদশ সংসদ নির্বাচন : বিএনপিকে নিয়ে দুই কৌশল আ’লীগের  » «   সিলেট পাসপোর্ট অফিসে রোহিঙ্গা নারী আটক  » «   মন্ত্রী-সচিবরা পাবেন ৭৫ হাজার টাকার মোবাইল  » «   রাজধানীতে নিরাপত্তা কর্মীকে খুন করে টাকা লুট  » «   চুয়াডাঙ্গার মাদক সম্রাট ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত  » «   বাসের চাপায় হাত হারিয়ে নিহত : রাজীবের ক্ষতিপূরণ দেয়ার আদেশ মঙ্গলবার  » «   নয়াপল্টনে রিজভী‘প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য খুলনার ভোটারদের সঙ্গে শ্রেষ্ঠ তামাশা’  » «   অবশেষে খোঁজ পাওয়া গেল সৌদি যুবরাজের!  » «   সাদা চাদরে ‘সতীত্বের পরীক্ষা’ দিতে হলো না ঐশ্বর্যকে  » «   অপুর ঘরে কোন ধর্মে বেড়ে উঠছে আব্রাম?  » «  

‘আ’লীগের সাথে নির্বাচনে গেলে জামায়াত ভালো



নিউজ ডেস্ক::আওয়ামী লীগের ওপর ক্ষোভ ঝেড়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। তিনি বলেছেন, ‘জামায়াত যখন আওয়ামী লীগের সাথে নির্বাচনে যায়, তখন জামায়াত ভালো কিন্তু যখন বিএনপির সঙ্গে আসবে তখন যুদ্ধাপরাধী হয়ে যায়।’ গত ১৫ জানুয়ারি সোবমার বেসরকারি টেলিভিশন যমুনা টিভির একটি সরাসরি টক-শো অনুষ্ঠানে এসে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সংবিধান সংশোধনী অনুযায়ী, অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচনের কোনো সুযোগ নেই। কারণ, নির্বাচনের সময় যে সরকার থাকবে সে সরকারটি পরিচালনাকারী সরকার হিসেবে কাজ করবে। এতে কোনো সন্দেহ নেই। সেখানে ৪০ জন মন্ত্রী থেকে যদি ২০ জন মন্ত্রীও ধরি তাহলে মন্ত্রণালয় বাড়বে। কিন্তু ক্ষমতার পরিধির কোনো পরিবর্তন হবে না।’

‘আর যদি পরিবর্তন না হয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বা অর্থ মন্ত্রণালয় যেভাবে কাজ করছে তখনও এভাবে কাজ করবে। পুলিশ, প্রশাসন এবং প্রধানমন্ত্রী একইভাবে
চলবে’ বলেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্র থাকলে আলোচনা এবং সমঝোতা থাকবে, গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রসঙ্গ থাকবে। কিন্তু ‘আমার ভোট আমি দেব, যাকে খুশি তাকে দেব-এরকম যে একটা কথা আছে তা সরে গেছে। কিন্তু আমরা এ জায়গায় ফিরে আসতে চাই। উৎসবমুখর এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক একটি নির্বাচন চাই আমরা। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি প্রত্যাশা করছি, তিনি গণতন্ত্রের নেত্রী হিসেবে দাবি করেন, তার দল দাবি করে, সেই জায়গা থেকে তিনি যাতে ভাবতে পারেন।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এরশাদ যখন ক্ষমতাচ্যুত হন, এর কয়েকদিন আগেও বলা যায় নি তিনি ক্ষমতা হারাবেন। তাই আন্দোলন কখন এবং কোন জায়গায় মোড় নেবে তা বলা মুশকিল। জাতি বিভিন্ন সময়ে গণতন্ত্রের প্রশ্নে শুধু আন্দোলন নয়, যুদ্ধ করেছে।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগও কিন্তু অনেক সময় নির্বাচন করেনি। বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেছে এবং বিএনপি নির্বাচন বিরোধী দল এটা
ভাবার কোনো কারণ নাই।’

তিনি আরও বলেন, ‘খালি চেতনা মানলে হবে না, মুক্তিযুদ্ধ মানলে বাক-স্বাধীনতা মানতে হবে। গণতন্ত্র থেকে আমরা যদি বাকশালে ফিরে যাই, তাহলে আমরা কি গ্রহণ করব? গণতন্ত্র না থাকলে বাংলাদেশের কোনো অর্থ নাই, মুক্তিযুদ্ধ নাই। আর ভোটাধিকার না থাকলে গণতন্ত্রের কোনো গুরুত্ব নাই। মানুষের মত প্রকাশ করার অধিকার যদি না থাকে, তাহলে আমাদের জাতির জন্য আর কোনো খারাপ বিষয় আছে বলে আমার মনে হয় না।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: