বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নির্বাচনে এজেন্ট পাওয়া নিয়ে চিন্তায় বিএনপি  » «   ফেসবুকের প্রধান কার্যালয়ে বোমা হামলার হুমকি  » «   ডিসিদেরকে রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট  » «   বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী  » «   নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে নতুন দুর্নীতির মামলা  » «   সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের জনসভা বাতিল  » «   টাইম ম্যাগাজিনে বর্ষসেরায় খাসোগিসহ চার সাংবাদিক!  » «   সৌদির অনুমোদন নিয়ে আরাফাতকে হত্যা: বাসাম  » «   ফাইনালের আগেই থেমে গেল মোদির বিজয়রথ!  » «   ফখরুলের গাড়িবহরে হামলায় ইসি বিব্রত: সিইসি  » «   খালেদা জিয়ার প্রার্থিতা: অনুলিপি না লেখায় সংশ্লিষ্ট বেঞ্চে ফেরত  » «   ‘নতুন বোতলে পুরাতন বিষ জামায়াত এখন ধানের শীষ’  » «   আজ সিলেট থেকে ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনী প্রচার শুরু  » «   ঐক্যফ্রন্টের টার্গেট তরুণ ভোটার, সুশাসন ও ক্ষমতা বিকেন্দ্রীকরণ  » «   আজ থেকে নির্বাচনী প্রচারে নামছেন শেখ হাসিনা  » «  

আরও ১২০-১৩০ রান করতে হবে বাংলাদেশকে



আরও ১২০-১৩০ রান করতে হবে বাংলাদেশকে

দুর্দান্ত একটি দিন গেলো আমাদের। দিনের শেষে মাহমুদউল্লাহর ওই আউটটি ছাড়া। শেষ মুহূর্তে রিয়াদের ওই আউটটা আসলে কেউ মেনে নিতে পারছে না। শটটি সে সোজা ব্যাটে খেলে আউট হলেও এক কথা ছিল। সতীর্থদেরকেও সহযোগিতা করতে হয়। বলতে হয়, আর এত বল আছে , এত ওভার বাকি আছে। নিশ্চয় ইমরুল তাকে বলেছিল; কিন্তু কেন যে ওই শটটি সে খেলতে, তা আমার মাথাতেও প্রবেশ করছে না।

সকাল বেলা তাইজুল, মিরাজদের বলে দিশেহারা হয়ে গিয়েছিল ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপ; কিন্তু ইংল্যান্ড যে সত্যিই পেশাদার একটি দল, সেটা বোঝা গেলো নবম উইকেট জুটিতে আদিল রশিদ আর ক্রিস ওকসের ব্যাটিং দেখে। ৯৯ রানের জুটি গড়েছে তারা। অবিশ্বাস্য ব্যাটিং। এই জুটিই অন্তত আমাদেরকে ৫০ রানের লিড থেকে বঞ্চিত করলো। না হয়, নিশ্চিত আমরা এগিয়ে থাকতাম।

উল্টো এই জুটিতে ইংল্যান্ডই এগিয়ে গেলো। তবে, আমাদের ব্যাটসম্যানরাও ভালো খেলেছে। তামিম-ইমরুল দুর্দান্ত ব্যাটিং শুরু করেছিল। তাদের ৬৫ রানের জুটির ব্যাটিং আমি মন্ত্রমুগ্ধের মত দেখেছি শুধু। কী অসাধারণ ব্যাটিং। তামিম-ইমরুলের প্রতিটি শটেই আত্মবিশ্বাসের চাপ।

উইকেটটা কত কঠিন! প্রতিটি বলেই আউট হওয়ার সম্ভাবনা। এমন উইকেটে মেরে খেলে রান তোলা ছাড়া আসলে উপায়ও নেই। ডিফেন্স করতে গেলেও যে টিকে থাকবে তার নিশ্চয়তা নেই। সেই জায়গায় তামিম-ইমরুল দুর্দান্ত ব্যাটিং করে বাংলাদেশের ওপর থেকে চাপ নামিয়ে দিলো।

এরপর দ্রুত দুটি উইকেট পড়ে গেলেও ইমরুল আর মাহমুদউল্লাহও দারুণ ব্যাটিং করেছে। তাদের ব্যাটিংও আমাকে খুব মুগ্ধ করেছে। মাহমুদউল্লাহ আগের ইনিংসে ভালো ব্যাট করতে পারেনি। এই ইনিংসে মনে হলো সে বড় একটি স্কোর করতে সক্ষম হবে। যেভাবে ব্যাটিং করছিল, তাতে এমনটা মনে হওয়া স্বাভাবিক।

তবে, সে যে ভুল করেছে- আমার কাছে এটা স্বাভাবিক। ক্রিকেট যারা খেলে, যারা ব্যাটসম্যান তাদের এমন ভুল দু`একটা হবেই। মাহমুদউল্লাহর দুর্ভাগ্য আউট হয়ে গেছে। আউট না হয়ে যদি শটটিতে বাউন্ডারি হতো, তাহলে সেই হতো নায়ক। আসলে ক্রিকেট এমনই। ঝুঁকি নিয়ে ভালো খেলতে পারলে নায়ক, না পারলে ভিলেন।

 

তবুও আমি বলবো, আমাদের আরও প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান আছে। সাকিব, মুশফিক, সাব্বির, শুভাগত হোম রয়েছে। মিরাজও ভালো ব্যাটিং করতে পারে। আগামীকাল সকালে ইমরুলের সঙ্গে হয়তো সাকিবই নামবে। দুই বাম হাতির বিপক্ষে হয়তো মঈন আলি আর বেন স্টোকস বোলিং শুরু করতে পারেন। শুরুতে এদের একটু ভালোভাবে সামলে যদি বাংলাদেশ অন্তত আর তিনটা ঘণ্টা ব্যাটিং করতে পারে, তাহলে নিশ্চিত একটা ভালো লিড দাঁড় করাতে পারবে।

আজই তো আমাদের লিড হয়ে গেছে ১২৮। আগামীকাল অন্তত ১২০ থেকে ১৩০ রান যোগ করতে হবে। তাহলে লিডটা ২৫০ ছাড়িয়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে এই পুঁজি নিয়ে ভালো লড়াই করা যাবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। জয়ের সম্ভাবনাও থাকবে। কারণ, স্পিনাররা আশা করি তাদের চেপে ধরতে পারবে চতুর্থ ইনিংসে।

ইমরুল সব সময়ই ভালো ব্যাটিং করে। আগেও দেখেছি, গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে তার ব্যাট কথা বলে। আজও দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে। তার ব্যাটের দিকে তাকিয়ে এখন পুরো দেশ। আমার প্রত্যাশা, ইমরুল অন্তত ইনিংসটাকে তিন অংকের ঘর ছোঁয়াবে। যেভাবে ব্যাট করছে, তাতে এটা খুব সম্ভব। আশা করি, ইমরুল সবার প্রত্যাশা পূরণ করবে। সে যদি টিকতে পারে, তাহলে নিশ্চিত বাংলাদেশ বড় একটি লিড পাবে বাংলাদেশ।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: