রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

আমিরাতে ডাকাতির দায়ে আট প্রবাসীর মৃত্যুদণ্ড



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সশস্ত্র ডাকাতিতে অভিযুক্ত আট প্রবাসীকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজা শহরের ফৌজদারি অপরাধ আদালত। মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত এই প্রবাসীদের বিরুদ্ধে শারজার একটি মানি এক্সচেঞ্জ সেন্টারে ডাকাতির অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে।

দুবাইভিত্তিক আরবি ভাষার দৈনিক এমারেত আল ইয়ুম বলছে, অভিযুক্ত ওই প্রবাসীরা মানি এক্সচেঞ্জ সেন্টারে সশস্ত্র অবস্থায় লুটপাট চালায়। তারা সেখানে প্রবেশ করে সাধারণ জনগণের ওপর হামলা ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মারধরের পর ভয়-ভীতি দেখিয়ে টাকা লুট করে চলে যায়।

এই মামলায় অপর এক অভিযুক্তকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। লুটের টাকার ভাগ নিজের কাছে রেখে দেয়ায় সাজা শেষে তাকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আমিরাতের এই আদালত। তবে অভিযুক্ত এই ব্যক্তি তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তিনি বলেছেন, অভিযুক্তদের একজনের ভাই লুটের ৬০ হাজার আমিরাতি দিরহাম নিজ দেশের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানোর জন্য অনুরোধ করেছিলেন।

তবে মানি এক্সচেঞ্জ সেন্টারে সশস্ত্র ডাকাতির এই অভিযোগ দণ্ডপ্রাপ্তদের কয়েকজন স্বীকার করলেও বাকিরা প্রত্যাখ্যান করেছেন। পুলিশের তদন্ত বলছে, মানি এক্সচেঞ্জ সেন্টারের ভিডিও ফুটেজ দেখে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের পর তাদের আঙুলের ছাপ পরীক্ষা করা হয়েছে।

গ্রেফতারের পর পুলিশের কাছে দেয়া স্বীকারোক্তিতে শারজার মানি এক্সচেঞ্জ সেন্টারে সশস্ত্র ডাকাতির অভিযোগ স্বীকার করেছেন তারা। অভিযুক্তদের একজন লুটের কিছু টাকা আদালতের কাছে ফেরত দিয়েছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: