মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ ফাল্গুন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অগ্নিঝুঁকিতে ঢাকার ৪১৬ হাসপাতাল-ক্লিনিক  » «   ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাবেন অস্ট্রিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী  » «   ফেসবুক ‘ডিজিটাল গ্যাংস্টার’: ব্রিটিশ পার্লামেন্ট  » «   মানহানির মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর  » «   পাকিস্তান থেকে ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরলেন সৌদি যুবরাজ  » «   দুই বছরের মধ্যে বিলুপ্ত হবে বিএনপি!  » «   মেয়র আরিফের বিরুদ্ধে কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগ, প্রতিকী আত্মহুতি  » «   আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে আজ শেষ হল বিশ্ব ইজতেমা  » «   আমিরাতের ক্রাউন প্রিন্সের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক  » «   ট্রাম্পের জরুরি অবস্থা ঘোষণার বিরুদ্ধে ১৬ অঙ্গরাজ্যের মামলা  » «   মেডিকেলের ডাস্টবিনে শিশুসহ ২৬ মানবদেহের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ  » «   উপজেলা নির্বাচনের তৃতীয় ধাপ থেকে ইভিএম: ইসি সচিব  » «   হজ পালনে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের দাবি হিজড়াদের  » «   সব বাধা উপেক্ষা করে গণশুনানি করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট  » «   অভিজিৎ হত্যা: অব্যাহতি পাচ্ছেন সাতজন, আসামি ছয়  » «  

‘আমার ‘পামপট্টির’ দরকার নাই’



নিউজ ডেস্ক::বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বক্তব্য চলাকালে ‘শ্লোগান’ দেয়ায় দলের কর্মীদের উপর বিরক্তি প্রকাশ করেছেন। আজ সোমবার (৯ জুলাই) বিকালে মহানগর নাট্যমঞ্চে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সু-চিকিৎসার দাবিতে প্রতীকী অনশনে বক্তব্য চলাকালে তিনি বিরক্তি প্রকাশ করেন।

কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমার ‘পামপট্টির’ দরকার নাই। শ্লোগান না দিয়ে আমার বক্তব্য শোনো। তোমাদের অনেক দিন বলেছি বক্তব্যে চলাকালে শ্লোগান দেবে না। কখন কোথায় শ্লোগান দিতে হয় তোমরা এই জিনিসটা তোমরা কবে বুঝবা। সময় কম চুপ করো।’

‘খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে শেষ করে দিচ্ছে এ সরকার’ এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘ঠিকমত কারাগারে বিদ্যুৎ থাকে না। খুবই ভয়াবহ অবস্থা। রাজনীতি করার কারণে বেগম জিয়া কারাগারে আছেন, এটা অস্বাভাবিক না। কিন্তু তাই বলে, তিনি চিকিৎসা, খাওয়া দাওয়াও পাবেন না?’

‘বক্তব্যে যে বক্তব্য শুনলাম আর যা বললাম তা যদি আমরা কাজে লাগাই তাহলে এই সরকার ক্ষমতায় থাকতে পারবে না।’

প্রতীকী অনশনে বিএনপি নেতাদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, নিতাই রায় চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান, চোয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, কবির মুরাদ, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খান প্রমুখ।

এতে সংহতি প্রকাশ করেছেন বিএনপি জোটের শরিক দলগুলোর নেতারা। সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন- অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমেদ, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: