রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

‘আমার জীবন তোমার পর্নোগ্রাফির বিষয় নয়’



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: গোপন ক্যামেরায় পর্নোগ্রাফির বিরুদ্ধে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে হাজার হাজার নারী বিক্ষোভ করেছে।বিক্ষোভে কেবল নারীরাই অংশগ্রহণ করেছেন।এটি দেশটিতে নারীদের অংশগ্রহণে অন্যতম বড় বিক্ষোভ।অপরাধীরা নারীদের অজান্তেই পাবলিক প্লেসে লুকানো ক্যামেরা দিয়ে নারীদের ছবি ধারণ করে থাকে।দক্ষিণ কোরিয়ায় পর্নোগ্রাফিক ছবি বা ভিডিও শেয়ার করা অবৈধ হলেও এগুলো অনলাইন ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজকরা বলছেন, অজান্তেই পর্নোগ্রাফিক ছবি বা ভিডিওর বিষয়বস্তু হওয়ার আতঙ্কের মধ্যে বাস করতে হয় দেশটির নারীদের।‘আমার জীবন তোমার পর্নোগ্রাফির বিষয় নয়’ এমন প্ল্যাকার্ড এবং ব্যানার লিখে বিক্ষোভে অংশ নেন নারীরা।বিক্ষোভে অংশ নেয়াদের মধ্যে বেশিরভাগের বয়সই ২০ বা তার কম।সাধারণত এই বয়সের নারীরাই বেশি লুকানো ক্যামেরায় পর্নোগ্রাফির শিকার হচ্ছেন।

বিক্ষোভকারীরা এ সময় যারা এ ধরনের ভিডিও বানাচ্ছে, এগুলো আপলোড করছে এবং দেখছে তাদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে।এ সময় আয়োজকদের নির্দেশ মতো মুখোশ, টুপি ও সানগ্লাস পরিহিত ছিল নারীরা।আন্দোলনকারীরা বলছেন, প্রায় ৫৫ হাজার নারী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।যদিও পুলিশ বলছে, ২০ হাজার নারী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।

একজন ব্যক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা শিক্ষার্থীদের জন্য নগ্ন হয়ে পোজ দেয়ার সময় তারই নারী সহকর্মী সেটির ভিডিও ধারণ করেন।পরে সেটি তিনি অনলাইনে ছড়িয়ে দেন।এ ঘটনায় গেলো মে মাসে ২৫ বছর ওই নারীকে গ্রেপ্তার করে দেশটির পুলিশ।এরপরই এই বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।

বিক্ষোভকারীদের বিশ্বাস অপরাধী একজন নারী হওয়ায় পুলিশ তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নিয়েছে।কিন্তু নারী ভুক্তভোগীদের ক্ষেত্রে অনেক সময়ই কেস বন্ধ করে দেয় পুলিশ।কারণ তাদের ভিডিও বিদেশি সার্ভার ব্যবহার করে আপলোড করা হয় বলে অপরাধীদের শনাক্ত করা সম্ভব হয় না।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ কোরিয়ার আইন অনুযায়ী পর্নোগ্রাফিক ছবি তৈরির জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ বছর কারাদণ্ড বা ১ কোটি ওয়ান এবং সেগুলো ব্যবসার উদ্দেশ্যে বিতরণের কারণে সর্বোচ্চ সাত বছর জেল ও ৩ কোটি ওয়ান জরিমানার বিধান রয়েছে।যদিও বিক্ষোভকারীদের দাবি, এই সাজা নিতান্তই কম।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: