বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
২৭ জুলাই খালেদার মুক্তি দাবিতে জাতিসংঘের সামনে বিক্ষোভ  » «   মৌসুমি বায়ু দুর্বল, বর্ষার বর্ষণ নেই  » «   সিলেটে দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্রের মৃত্যু  » «   হরিণাকুণ্ডুতে র‌্যাবের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সদস্য নিহত  » «   পুলিশের সোর্স মামুন মাদক ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে নিয়ে উধাও  » «   ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরি, সালিসে জরিমানার টাকা ভাগাভাগি!  » «   আইনমন্ত্রীর বাসায় প্রধানমন্ত্রী  » «   ‘এদেরকে নিয়েই মান্না সাহেব দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করিবেন’  » «   রাশিয়ায় বিশ্বকাপ দেখতে গিয়ে পুলিশের জালে বাংলাদেশী যুবক  » «   বিদেশ ও জেল থেকে আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ করছে শীর্ষ সন্ত্রাসীরা  » «   বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত মনোনীত রবার্ট মিলার  » «   বেবী নাজনীন অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি  » «   কোটা আন্দোলন: ছাত্রলীগের হুমকিতে ক্যাম্পাস ছাড়া চবি শিক্ষক  » «   ভেবেই ক্লাব বদল করেছেন রোনালদো  » «   ভারতে নিষিদ্ধ, অন্য দেশে পুরস্কৃত যেসব ছবি  » «  

আমরা ধর্ষিত হচ্ছি: এরশাদ



নিউজ ডেস্ক::প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ আর বিএনপির দুঃশাসনের কারণে দেশের জনগণ এখন তাদের প্রতি আস্থা একেবারে হারিয়ে ফেলেছে। আমার শাসনামলে মানুষ নিরাপদে ছিল। আর এখন খুনের মহোৎসব চলছে। নারী ও শিশু ধর্ষণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে। এর ফলে আমরা সবাই ধর্ষিত হচ্ছি।

রোববার দুপুরে রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি মাঠে জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন ইস্যুতে আওয়ামী লীগ সরকারের সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে। বর্তমানে তাদের অবস্থা নাজুক। জনগণের আস্থা হারিয়ে সরকার এখন দিশেহারা।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির অবস্থা ছিন্নভিন্ন। তাদের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় কারাভোগ করছেন, নেতাশূন্য দল। আগামী নির্বাচনে তারা অংশ নিতে পারবে কি-না তা নিয়ে আমার সন্দেহ আছে।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে এরশাদ বলেন, বিগত দিনে আমাদের ছাড়া কেউই এককভাবে ক্ষমতায় আসতে পারেনি, আগামীতেও পারবে না। ৯১ সালে বিএনপি আর ৯৬ সালে আওয়ামী লীগ এ দুই দল আমাদের সহায়তা নিয়েই সরকার গঠন করেছিল। ফলে আমাদের অবহেলা করবেন না।

রংপুর অঞ্চলের জাতীয় পার্টির বর্তমান অবস্থা সম্পর্কে এরশাদ বলেন, রংপুর ছিল জাতীয় পার্টির দুর্গ। এ দুর্গ মেরামত করতে হবে। আগামী নির্বাচনে রংপুর অঞ্চলের ২২টি আসনে জয়ী হলে আমরাই ক্ষমতায় যাব।

দেশে মাদকদ্রব্যের বেচাকেনা বেড়ে যাওয়ায় আশঙ্কা প্রকাশ করে এইচ এম এরশাদ বলেন, এখন চায়ের দোকানেও মাদক পাওয়া যায়। যা মাদক তরুণ প্রজন্মকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে।

জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমানের সভাপতিত্বে সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব সাংসদ এ বি এম রুহুল আমীন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সাংসদ কাজী ফিরোজ রশীদ, মেজর (অব.) খালেদ আখতার, রংপুর মহানগর কমিটির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এ ইয়াসিরসহ উপজেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরা বক্তব্য দেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: