রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
ইতালিতে করোনায় আক্রান্ত ৭৯  » «   জেলগেট থেকে স্বামীকে নিয়ে যায় ডিবি, আজ শুনি বন্দুকযুদ্ধে নিহত  » «   ইরানে করোনাভাইরাসে ৫ জনের মৃত্যু  » «   আ. লীগের মনোনয়ন পাননি স্বামী, যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে গেছেন শাবানা  » «   অনৈতিক কাজে নারী সরবরাহ, দম্পতিসহ গ্রেপ্তার ৪  » «   পাকিস্তান আমলে রাস্তায় আন্দোলন করেছি, এখন করা যায় না  » «   ব্যাংক ঋণে চলছে সরকার  » «   মুজিববর্ষে ২০০ টাকার নোট আসছে বাজারে  » «   সরকারি চাকরিজীবীদের বড় সুখবর দিল সরকার  » «   বিমানবন্দরে মুসলিমদের বাড়তি তল্লাশির পরামর্শ রায়ানএয়ার সিইওর  » «   শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসানের অন্যতম সহযোগী শাকিল গ্রেপ্তার  » «   কুৎসা রটানোয় হতাশ হলেও বার্সাতে সুখেই আছেন মেসি  » «   ওয়াসার পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব, ক্ষুব্ধ নগরবাসী  » «   শহীদের সঙ্গে প্রেম ভাঙলো কার দোষে? মুখ খুললেন কারিনা  » «   বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা পেল সখীপুরের ২ হাজারের বেশি মানুষ  » «  

আবার নামতে পারে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের ঢল : জাতিসংঘ



dbcee9c902268c0d9e0620a1a594c16c_XLনিউজ ডেস্ক :: জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক হাইকমিশন বা ইউএনএইচসিআর হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, চলতি মাসের শেষ দিকে নতুন করে দক্ষিণপূর্ব এশিয়াগামী রোহিঙ্গা মুসলমান এবং বাংলাদেশি মানুষের ঢল নামতে পারে। খবর রেডিও তেহরান।

এতে বলা হয়েছে, বঙ্গোপসাগর নতুন করে নৌকায় পাড়ি দেয়ার চেষ্টায় হন্যে হয়ে উঠবে রোহিঙ্গা মুসলমানরা। বর্ষা মওসুম শেষ হওয়ার আগেই দ্রুত এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া দরকার বলে জাতিসংঘ মনে করছে। জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে ইউএনএইচসিআর মুখপাত্র মেসিলা ফ্লেমিং এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

নির্যাতনের হাত থেকে প্রাণে বাঁচার আশায় চলতি বছরের গোড়ার দিকে মারাত্মক ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় মিয়ানমার থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় নেমেছিল রোহিঙ্গা মুসলমানরা। থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া এব্ং মালয়েশিয়া এ সব হতভাগ্য শিশু-নারী-পুরুষদের আশ্রয় দেয় নি বা তাদের আবার ফেরত পাঠানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করলে এক ভয়াবহ মানবিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

মেসিলা ফ্লেমিং বলেন, জাতিসংঘ আশংকা করছে, এক মাসের মধ্যে আবারো এ রকম পরিস্থিতি দেখা দিতে পারে। এ জাতীয় পরিস্থিতি এড়ানোর লক্ষ্যে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আঞ্চলিক সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ইউএনএইচসিআর’এর হিসাব অনুযায়ী চলতি বছরের শুরু থেকে ৩১ হাজার রোহিঙ্গা মুসলমান এবং বাংলাদেশি মানুষ নৌকায় বঙ্গোপসাগর পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করেছে। ২০১৪ সালের একই সময়ের তুলনায় এ সংখ্যা ৩৪ শতাংশ বেড়েছে বলে এ হিসাবে বলা হয়েছে। ২০১৪ সাল থেকে এ ভাবে মোট ৯৪ হাজার ভাগ্যান্বেষী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাগর অতিক্রম করে অন্য দেশে পাড়ি জমানোর চেষ্টা করেছে। আর এ কাজ করতে যেয়ে ১১০০’র বেশি হতভাগ্য মানুষ সাগরে ডুবে মারা গেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: