বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
খালেদা জিয়ার সুবিধার্থে কেরানীগঞ্জে আদালত স্থাপনের সিদ্ধান্ত: তথ্যমন্ত্রী  » «   বুথফেরত জরিপের ফলেই ‘বিজয়োৎসব’ শুরু বিজেপির  » «   হুতি বিদ্রোহীদের হামলা, সৌদির পাশে থাকবে পাকিস্তান  » «   ধানক্ষেতে আগুনের ঘটনা তদন্তে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ  » «   মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়ছে  » «   বালিশ দুর্নীতি: নির্বাহী প্রকৌশলী প্রত্যাহার  » «   এফআর টাওয়ার নির্মাণে ত্রুটি, তদন্ত প্রতিবেদনে দোষী ৬৭ জন  » «   ক্ষতিপূরণ দিতে গ্রিনলাইনকে আদালতের আল্টিমেটাম  » «   প্রখ্যাত তিন ইসলামি স্কলারের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করছে সৌদি  » «   মৌলভীবাজারে কে এই ‘পীর’ আজাদ?  » «   ৮০ বছরের মধ্যে সাগরে ডুবে যাবে বাংলাদেশ!  » «   অনলাইনে ট্রেনের টিকিট: বিক্রি শুরুর আগেই টিকিট শেষ!  » «   আজ সিলেটের যে নয়টি এলাকায় গ্যাস সংযোগ বন্ধ থাকবে  » «   অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার বিক্রির দায়ে ইষ্টিকুটুম-মধুবনকে জরিমানা  » «   বুধবারীবাজার ইউনিয়ন আ.লীগ সভাপতি রফিক উদ্দিনের জানাযায় মানুষের ঢল  » «  

আপিলে হারলো যুক্তরাজ্য সরকার, কাটতে পারে বহু বাংলাদেশির ভিসা জটিলতা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: চার ভারতীয় নাগরিকের ভিসা বাতিলের ক্ষেত্রে ব্রিটিশ অভিবাসন আইনের একটি ধারার ব্যবহারকে ‘আইনগত ত্রুটিপূর্ণ’ বলে রায় দিয়েছে যুক্তরাজ্যের আপিল আদালত। দক্ষ ভিসা ক্যাটাগরির আওতায় এই ভারতীয় পেশাজীবীদের অনির্দিষ্টকাল বসবাসজনিত ছুটি (ইনডিফিনেট লিভ টু রিমেইন-আইএলআর) বাতিল করেছিল যুক্তরাজ্য।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) যুক্তরাজ্যের আপিল আদালত ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই সিদ্ধান্তকে ত্রুটিপূর্ণ আখ্যা দিয়েছে।ফলে একই কারণে আইএলআর বাতিল হওয়া বহু বাংলাদেশি নাগরিক আবারও যুক্তরাজ্যে বসবাসের অনুমতি পেতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ অভিবাসন আইন অনুযায়ী, দেশটিতে বৈধভাবে পাঁচ বছর বসবাসের পর আইএলআর আবেদন করা যায়। সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিকদের আইএলআর বাতিল করে যুক্তরাজ্য। অভিবাসন আইনের ৩২২(৫) ধারা প্রয়োগ করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই ধারায় ভিসা প্রার্থীদের আচরণ ও চারিত্রিক শর্ত নির্ধারণ করা আছে।

ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে জানানো হয়, ‘এসব ব্যক্তি শুল্ক বিভাগে তাদের আয়ের তথ্য দেওয়ার ক্ষেত্রে অসততার আশ্রয় নিয়েছেন।’ তবে মঙ্গলবার লন্ডনের রয়্যাল কোর্ট অব জাস্টিস ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভেদ-এর এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে। আইএলআর বাতিল করতে যেসব ক্ষেত্রে অভিবাসন আইনের ৩২২(৫) ধারা প্রয়োগ করা হয়েছে সেগুলো পুনর্মূল্যায়নের নির্দেশ দেয় আদালত।

আপিল করা চার ভারতীয় নাগরিকের মামলা প্রসঙ্গে লর্ড জাস্টিস আন্ডারহিল-এর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চের রায়ে বলা হয়, ‘চূড়ান্ত ফলাফলে এই চারটি আপিল অনুমোদন করা হলো’। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বেশ কয়েকটি নির্দেশনাও দেয় আদালত।

চার ভারতীয় নাগরিকের আপিল অনুমোদন পেলেও বহু বাংলাদেশি পেশাজীবীর আইএলআর বাতিলের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কয়েকজন আইনপ্রণেতা বিষয়টি পার্লামেন্টেও তুলেছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: