রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আষাঢ় ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নেতাদের শাসালেন শেখ হাসিনা  » «   যমুনা নদীতে বিলীন হচ্ছে বসত বাড়ি, দেখার কেউ নেই!  » «   নতুন চলচ্চিত্রের জন্য ইরানে অনন্ত  » «   নেইমারের জার্সি গায়ে অপু ও জয়  » «   সিসিক নির্বাচন: আ.লীগ মেয়র প্রার্থী হলেন কামরান  » «   বাসায় ঢুকে অভিনেত্রীকে শ্লীলতাহানি!  » «   আর্জেন্টিনার হার, বেরিয়ে এলো বিস্ফোরক তথ্য!  » «   দুর্ঘটনা সড়কে মৃত্যুর মিছিল, নিহত ৩০, আহত ৪৭  » «   ‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’  » «   হাসপাতালে পরীমনি  » «   আর্জেন্টিনার হার, ‘সুইসাইড নোট’ লিখে নিখোঁজ মেসি ভক্ত  » «   সাপাহারে ট্রাক ও ভ্যানের মুখো-মুখি সংঘর্ষে নিহত-২  » «   দুর্ঘটনার দিন ঢাকাতেই ছিলাম না’  » «   ভক্তদের হতাশ করেনি ব্রাজিল : অতিরিক্ত সময়ই বিশ্বকাপে টিকিয়ে রাখল নেইমারদের  » «   হাসপাতালের এক্সরে রুমে রোগীর মাকে ধর্ষণের চেষ্টা!  » «  

আপনার জিজ্ঞাসা নারীর চুল খোলা রাখলে কি জিনের আছর পড়ে?



ইসলাম ডেস্ক::নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ১৯৭০তম পর্বে জিনের আছর পড়ার কারণ সম্পর্কে ঢাকার দক্ষিণ দনিয়া থেকে চিঠিতে জানতে চেয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দর্শক। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : জিন দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার কিছু কারণ সমাজে প্রচলিত আছে। যেমন : দুধ খেয়ে সন্ধ্যায় বাইরে গেলে, নতুন বিবাহিত নারী চুল খোলা রাখলে, গর্ভবতী মহিলারা সন্ধ্যায় বা ভরদুপুরে বাইরে গেলে, বাজার থেকে মাছ কিনে আনলে মাছের সঙ্গে জিন দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রচলিত আছে। এগুলো কি সহিহ?

উত্তর : সন্ধ্যাবেলায় শয়তানরা ইনতেশার হয়, সহিহ বুখারি হাদিস দ্বারা সাব্যস্ত হয়েছে। যখন সূর্য ডুবুডুবু হয়, তখন কিন্তু শয়তানের প্রভাবটা বিস্তার লাভ করে এবং শয়তানরা পৃথিবীর মধ্যে প্রসার লাভ করে থাকে। এটি সহিহ হাদিস দ্বারা সাব্যস্ত হয়েছে। সুতরাং সন্ধ্যাবেলায় যদি কেউ কোনো কারণে স্বাভাবিক নিয়ম ভঙ্গ করে বাইরে যান অথবা ছোট বাচ্চাদের বাইরে পাঠান অথবা নিজের সৌন্দর্যকে উন্মুক্ত করে বাইরে ঘুরে বেড়ান, তাহলে সন্ধ্যার ওই বিশেষ সময়টাতে তার জিনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা আছে। কারণ, জিনেরা ক্ষতি করার জন্য চেষ্টা করতে থাকে।

যখন প্রথম প্রহরটা কেটে যাবে, প্রথম এক ঘণ্টা কেটে যাবে, এর পরে না। এর পরে তাঁরা আর এ অবস্থায় থাকে না—এটি সহিহ হাদিস দ্বারা সাব্যস্ত হয়েছে।

বাজার থেকে মাছ আনলে জিনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কার কথা হাদিস দ্বারা প্রমাণিত হয়নি। তার পর যে কথাগুলো উল্লেখ করেছেন, ভরদুপুরে বাইরে গেলে, দুধ খেয়ে বাইরে গেলে অথবা গর্ভবতী নারী বাইরে গেলে যে জিনে আক্রান্ত হবে, এমন ধরনের বক্তব্য মূলত আমাদের সমাজে প্রচলিত কিছু কুসংস্কার। তবে জিনে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা যদি কেউ মনে করে থাকেন, তাহলে তাঁর সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: