শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আগামীতে শহীদুজ্জামান সরকারকে নৌকা মার্কায় ভোট দিলে নজিপুর জেলাসহ সব উন্নয়ন হবে :নাসিম  » «   মাহিরাকে জোর করে চুমু খাওয়ার চেষ্টা, ভাইরাল ভিডিও  » «   বরের বয়স ৮৩ কনে ৩০  » «   ‘তারেকের নেতৃত্বে বিএনপি এখন অনেক শক্তিশালী’  » «   চলন্ত বাসে ডাকাতি ও চালক খুন, গ্রেপ্তার ১৩  » «   প্রধানমন্ত্রী ভোট চাচ্ছেন, খালেদা জিয়া অন্ধকার প্রকোষ্ঠে : ফখরুল  » «   কিশোরের মৃত্যু, লাশ রেখে সঙ্গীদের পলায়ন  » «   এক সঙ্গে তারা  » «   অশ্লীল কার্যকলাপে লিপ্ত, ১১ প্রেমিক যুগলের জরিমানা!  » «   দুই ঘণ্টার জন্য বিমান আটকে দিলো মশা  » «   বিয়ের নামে চীনে বিক্রি হচ্ছে পাহাড়ি মেয়েরা  » «   ডেকে নিয়ে যুবকের গলাকেটে হত্যা  » «   বড়লেখার মেধাবী তোফায়েলের চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক লাভ  » «   পুলিশ পরিচয়ে কিশোরীকে যুবলীগ নেতার ধর্ষণ  » «   সিলেটে হবে ভারতীয় হাইকমিশন অফিস  » «  

আদিবাসী নারীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ



নিউজ ডেস্ক::রাজশাহীতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে আদিবাসী এক নারীকে দিনের পর দিন ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় সুজন আলী (২৪) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রতারক সুজন উপজেলার খানপুর গ্রামের আফসার আলীর ছেলে। শনিবার গভীর রাতে সুজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছেন উপজেলার পিয়ারপুর গ্রামের ২৩ বছর বয়সী প্রতারণার শিকার ওই নারী।

মামলার এজাহারে এক সন্তানের জননী ওই আদিবাসী নারী দাবি করেছেন, প্রায় দুই বছর ধরে সুজনের সঙ্গে তার পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। বিয়ের প্রলোভন দিয়ে সুজন তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কও গড়ে তুলেছিলেন। শনিবার রাতেও সুজন তার বাড়ি গিয়েছিলেন। কিন্তু বিয়ের কথা বলতেই তালবাহানা শুরু করেন সুজন। তখন এলাকার লোকজন ডেকে তাকে আটকে রাখেন।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাসুদ পারভেজ জানান, এলাকার লোকজনই পুলিশে খবর দেন। পরে তাদের দুজনকেই থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর ওই নারী মামলা করেন। রবিবার সকালে সুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। ওই নারীকেও ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: