মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ ফাল্গুন ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
রাতে দেশ ছাড়ছেন মাহমুদউল্লাহ-মুস্তাফিজ  » «   পারিবারিক অশান্তির মূলে পরকীয়া  » «   ‘এই সুমি সেই সুমি’  » «   সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ প্রিয়া প্রকাশ  » «   খালেদার শহীদ মিনারে শ্রদ্ধার বিষয়ে যা বললেন আ’লীগ নেতারা  » «   পাবনায় সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে বই পড়া ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত  » «   পাবনা জেলা বিড়ি শিল্প মালিক সমিতির কমিটি গঠন শাহাদত সভাপতি রাসেল সম্পাদক  » «   কানাডায় বাংলাদেশি তরুণীর কৃতিত্ব  » «   মাথা না ধুলে ফরজ গোসল হবে?  » «   হোটেলে রুম ফাঁকা নেই, ফিরিয়ে দেয়া হলো মোদিকে  » «   ‘বর্তমান অবস্থায় খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন না’  » «   হবিগঞ্জে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের গুলি,আহত ৩০  » «   পোশাক নিয়ে আলোচনায় সোহানা সাবা  » «   ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে প্রস্তুত শহীদ মিনার  » «   চুনারুঘাটে অগ্নিকান্ডে ২টি দোকান পুড়ে ছাই  » «  

‘আদর্শের জায়গা থেকে কবিতা ধারণ করতে হবে’



নিউজ ডেস্ক:: সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, কবিতা আমাদের বড় শক্তি, আদর্শের জায়গা থেকে একে ধারণ করতে হবে। তিনি বলেন, সব রকম অন্যায়-অত্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদমুখর হতে কবিতাই আমাদের বড় অস্ত্র।
বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত ‘জাতীয় প্রায়োগিক কর্মশালা ও বার্ষিক সম্মেলন ২০১৭’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
আবৃত্তি শিল্পীসহ সবাইকে শুদ্ধ উচ্চারণ ও নির্ভুল বানানের প্রতি মনোযোগী হওয়ার পরামর্শ দিয়ে সংস্কৃতি মন্ত্রী বলেন, ভুল উচ্চারণ যেমন কানে লাগে, ভুল বানানও তেমনি চোখে পড়ে। তাছাড়া কণ্ঠ ও উচ্চারণের বাইরে যেটি বেশি প্রয়োজন, সেটি হল কবিতার গভীরে প্রবেশ করা।
সুন্দরভাবে কবিতা উপস্থাপন ও আবেগে বিহবল হওয়াই কবিতার মুখ্য বিষয় নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, বরং কবিতা আমাদের অনেক বেশি দায়িত্ব ও কর্তব্য কাঁধে নেয়ার কথা বলে। আর সেটি হলো সমাজ বিনির্মাণের কথা।
নাটক ও আবৃত্তি চর্চাকারীদের তথা সংস্কৃতিকর্মীদের প্রতি পাড়ায় প্রতি বিদ্যালয়ে গিয়ে নতুন প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের সংস্কৃতি চর্চায় উদ্বুদ্ধ ও অনুপ্রাণিত করার আহ্বান জানিয়ে নূর বলেন, বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিলেন, এখন চলছে তা বাস্তবায়নের সংগ্রাম এবং তা অব্যাহত রাখতে হবে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির যে ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে তাতে সংস্কৃতিকর্মীদের আবাসনের সুবিধার্থে একটি ডরমিটরির ব্যবস্থা রাখা হবে।
বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্যাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, বাংলাদেশ পথনাটক পরিষদের সভাপতি মান্নান হীরা এবং বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ঝুনা চৌধুরী। কর্মশালায় সারাদেশের আবৃত্তি সংগঠনগুলো থেকে ছয় শতাধিক প্রশিক্ষাণার্থী অংশগ্রহণ করছে।
আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদ আয়োজিত তিন দিনব্যাপী জাতীয় প্রায়োগিক কর্মশালা এবং বার্ষিক সম্মেলন আজ থেকে শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ২১ অক্টোবর পর্যন্ত। বাসস

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: