মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
অবশেষে বাড়ছে সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স  » «   টানা দুই সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিলে ঝুঁকিতে পড়বে নিবন্ধন: ইসি  » «   সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করুন: বিশ্বনেতাদের প্রধানমন্ত্রী  » «   আসামের নাগরিক তালিকা সংশোধন শুরু, চলবে দুই মাস  » «   শিক্ষার উন্নয়নে মুনাফার মানসিকতা ত্যাগের আহ্বান শেখ হাসিনার  » «   ভারতে ‘গণেশ’ বিসর্জন দিতে গিয়ে ১৮ জনের মৃত্যু  » «   পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে চান ভারতীয় সেনাপ্রধান  » «   প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন  » «   কাশ্মীরে বিদ্রোহীদের টার্গেট এখন পুলিশ  » «   রোহিঙ্গাদের জন্য ১৩শ কোটি টাকার মার্কিন সহায়তার ঘোষণা  » «   ট্রাক চাপায় অটোরিকশার চালকসহ নিহত ৫  » «   দুর্নীতির প্রমাণ পেলেই সিনহার বিরুদ্ধে মামলা হবে: দুদক চেয়ারম্যান  » «   মানব পাচারের ঝুঁকি বেড়েই চলেছে: জাতিসংঘে প্রতিমন্ত্রী  » «   আরপিও সংশোধন: সরকারের দিকে তাকিয়ে ইসি  » «   রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে প্রধানমন্ত্রীর ৩ প্রস্তাব  » «  

আজানের জন্য চুরি হয়নি সোনার মলাটওয়ালা কোরআন



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ব্রিটিশ ভারতের করদ রাজ্য হায়দ্রাবাদের নিজামের যাদুঘর থেকে চুরি যাওয়া মূল্যবান সামগ্রীগুলো উদ্ধার করা হয়েছে মুম্বাইয়ের এক বিলাসবহুল হোটেল থেকে।গ্রেফতার করা হয়েছে দু’জনকে।

চুরি যাওয়া জিনিসপত্রের মধ্যে ছিল করদ রাজ্যের শাসক নিজামের সোনার টিফিন বাক্স।চার কেজি সোনা দিয়ে তৈরি তিন-স্তরের টিফিন বাক্সটিতে হীরা এবং চুনি ও পান্নার মতো মূল্যবান পাথর বসানো যার মূল্য কয়েক কোটি রুপি।এছাড়াও ছিল চুনি-পান্না বসানো একটি সোনার কাপ,বাটি, ট্রে ও চামচ।

এসব সামগ্রীর সবগুলোই পাওয়া গেছে লোক দুটির কাছে।হলিউড-স্টাইলের এই চুরি রহস্যের সমাধান হবার পর এখন পুলিশের মুখ থেকে বেরিয়ে আসছে মজার মজার সব তথ্য।যেমন পুলিশ বলছে- হায়দ্রাবাদের নিজাম নাকি কখনোই সোনার টিফিন বাক্সটি ব্যবহার করেননি।কিন্তু চোরদের একজন গত কয়েকদিনে খাওয়া-দাওয়ার জন্য প্রতিবারই এই বাক্সটি ব্যবহার করেছে।

গত ২ সেপ্টেম্বর রাতে ওই দু’জন হায়দ্রাবাদের পুরানি হাভেলির একটি ঘুলঘুলির লোহার গরাদ কেটে ওই জাদুঘরে প্রবেশ করে।’তারা ঠিক যখন সোনার প্রচ্ছদবিশিষ্ট একটি মূল্যবান কোরআন শরিফ নিয়ে যাবার জন্য হাত বাড়ায় ঠিক তখনি কোন একটি মসজিদ থেকে ফজরের আজান শুরু হয়।এতে তারা ভয় পেয়ে যায় এবং কোরআন শরিফটি চুরি করা থেকে বিরত হয়’-বলছিলেন হায়দ্রাবাদের পুলিশ কমিশনার আনজানি কুমার।

সূত্র-বিবিসি বাংলা।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: