শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দেশীয় কোম্পানির ক্যাপসুলে চলতি মাসেই ভিটামিন ‘এ’ ক্যাম্পেইন!  » «   মঞ্চে প্রধানমন্ত্রী, নাচ-গান-স্লোগানে মুখরিত বিজয় উৎসব  » «   ধনী বৃদ্ধির হারে বাংলাদেশ বিশ্বের তৃতীয় দেশ  » «   ভোটাধিকার হাইজ্যাক করেছে আওয়ামী লীগ : ড. কামাল  » «   রাজনৈতিক দলগুলোকে সংলাপে বসার আহ্বান জাতিসংঘের  » «   আওয়ামী লীগের বিজয় উৎসব ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা  » «   অ্যাসাঞ্জের গোপন বৈঠকের খোঁজ নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র  » «   সৌদি নারীদের বিয়ে করতে পারবে বাংলাদেশিরা, মিলবে ভাতা  » «   এমপি কয়েসের হাত ধরে বিএনপির হাবিব এখন আওয়ামী লীগে  » «   জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী আজ  » «   রোহিঙ্গাদের দেখতে আজ বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের দূত  » «   ‘দম বন্ধ হয়ে আসছে, আমাকে ছেড়ে দিন’  » «   দুই যুগে কতটা সফল ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা?  » «   কলম্বিয়ায় পুলিশ একাডেমিতে গাড়িবোমা বিস্ফোরণ, নিহত ১০  » «   সোহরাওয়ার্দীতে আজ আওয়ামী লীগের বিজয় সমাবেশ  » «  

অ্যাপে অর্ডার করলেই মিলবে গাঁজা



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: যারা গাঁজা সেবন করেন তাদের জন্য সুখবরই বটে। কেননা গাঁজার জোগান পেতে হলে এখন আর তাদেরকে যেতে হবে না কারও দুয়ারে। বাড়িতে বসে অ্যাপে অর্ডার করলেই পৌঁছে যাবে গাঁজা। এখন যেভাবে চলাচলের জন্য গাড়ি মোটরসাইকেল কিংবা ট্যাক্সি খোঁজা যায় সহজেই, ঠিক তেমনি গাঁজা পাওয়া যাবে। আর এই সুবিধা পাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এমন তথ্যই জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, এখন থেকে লস অ্যাঞ্জেলসের বাসিন্দারা খুব সহজেই তাদের পছন্দের পণ্যটি কিনতে পারবেন। আর এজন্য মোবাইলে ডাউনলোড করতে হবে একটি অ্যাপ। অ্যাপে গিয়ে পরিমাণমতো পছন্দ করে তার অর্ডার করলেই পৌঁছে যাবে বাড়িতে।

গাঁজা বিক্রির অভিনব এই পদ্ধতি চালু করেছে ‘ইজ’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান। যুক্তরাষ্ট্রের বেশ কিছু অঙ্গরাজ্যে স্বল্প পরিমাণে গাঁজা বিক্রির বৈধতা দেয়া হয়েছে। আগে শুধু চিকিৎসার জন্য গাঁজা সেবন বৈধ করা হলেও এখন আমোদ কিংবা নিজের মনকে সতেজ রাখার জন্যও অল্প পরিমাণে গাঁজা সেবনের বৈধতা দেয়া হয়েছে দেশটিতে।

এমন বৈধতার পর গাঁজা সেবন করতে যারা ভালোবাসেন তাদের জন্য এই সুবিধা নিয়ে এসেছে ‘ইজ’ নামের ওই প্রতিষ্ঠান। গত বছরের জানুয়ারিতে বিভিন্ন রাজ্যে গাঁজা সেবনের বৈধতা দেয়া হলে প্রায় আশি শতাংশ ক্রেতা বেড়ে গেছে দেশটিতে। আর এমন চাহিদার কথা মাথায় রেখে গাঁজা ক্রয়ের সুবিধার্থে এমন পন্থা অবলম্বন করলো ওই স্টার্ট আপ কোম্পানি।

এর আগেও ২০১৪ সালে ‘ইজ’ তাদের অ্যাপের মাধ্যমে গাঁজা বিক্রি শুরু করে। তবে তা ছিল খুব সীমিত আকারে। আর তখন একটু সীমাবদ্ধতা ছিল। কেউ যদি গাঁজা কিনতে চাইতো তাহলে তাকে দেখাতে হতো চিকিৎসকের সনদপত্র। অর্থাৎ চিকিৎসক লিখিতভাবে সুপারিশ করলেই কেবল গাঁজা বিক্রি করা যেত।

কিন্তু আইন পরিবর্তনের কারণে এখন আমোদপ্রমোদের জন্যও গাঁজা সেবন করা যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ১০টি অঙ্গরাজ্যে গাঁজাসেবন এখন বৈধ। তাছাড়াও দেশটির ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ৩৩টিতেই চিকিৎসার ক্ষেত্রে গাঁজা সেবনকে বৈধতা দেয়া হয়েছে।

ইজ-এর পরিচালক শিনা শিরাভি বলেন, ‘মানুষ এখন তাদের অবসর সময়ে বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে সময় কাটানোর জন্য গাঁজা সেবন করতে চায়। আর এই গাঁজা জোগাড় করতে গিয়ে যে সময় ব্যয় হয় সেটা তারা দিতে চায় না। তাই কেউ তাদেরকে বাড়ি গিয়ে গাঁজা পৌঁছে দিলে সুবিধা হয় তাদের। ক্রেতাদের এমন ভাবনা ও চাহিদার প্রেক্ষিতেই এমন উদ্যোগ নিয়েছি আমরা।’

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: