শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কর্মসূচি ঘোষণা  » «   সীমান্তের খালে মিয়ানমারের সেতু, বন্যার আশঙ্কা বাংলাদেশে  » «   দ্বিতীয় কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠাবে বাংলাদেশ: শাবিতে পরিকল্পনামন্ত্রী  » «   আতিয়া মহল মামলা: ৫ দিনের রিমান্ডে ৩ আসামি  » «   শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলা: হাইকোর্টে আপিল শুনানি শুরু  » «   টিআইবির রিপোর্টে সরকার ও ইসির আঁতে ঘা লেগেছে: বিএনপি  » «   মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে দশ বাংলাদেশির অনন্য সাহসিকতার নজির  » «   ১৪ দলের শরিকদের বিরোধী দলে থাকাই ভালো: ওবায়দুল কাদের  » «   সন্ত্রাস-মাদক-জঙ্গিবাদের মতো দুর্নীতির বিরুদ্ধেও ‘জিরো টলারেন্স’ : প্রধানমন্ত্রী  » «   সংসদ সদস্যদের শপথের বৈধতা নিয়ে রিট খারিজ  » «   কৃত্রিম কিডনি তৈরি করলেন বাঙালি বিজ্ঞানী  » «   ব্রেক্সিট ইস্যু: অনাস্থা ভোটে টিকে গেলেন তেরেসা মে  » «   টিআইবির প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়, পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করি: সিইসি  » «   জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে অফিস করছেন শেখ হাসিনা  » «   সংসদ কার্যকর রাখতেই বিরোধী দলে জাপা : জিএম কাদের  » «  

অ্যাপল ওয়াচ: হাতঘড়িতেই ইসিজি



তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:: বিশ্বের প্রথম এক লাখ কোটি ডলার মূল্যমানের প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠা অ্যাপল বুধবার সামনে এনেছে নতুন তিনটি মোবাইলফোন।ওই একই অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটি বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে চতুর্থ প্রজন্মের অ্যাপল ওয়াচের।নতুন এই অ্যাপল ওয়াচে রয়েছে ইলেক্ট্রোকার্ডিওগ্রাম (ইসিজি) করার ব্যবস্থা।পরিধানকারী যেকোনও সময় তার ঘড়ি ব্যবহার করেই জানতে পারবেন হৃৎপিণ্ডের অবস্থা।ইসিজির পাশাপাশি এই ঘড়িতে রয়েছে অসুস্থ হয়ে পড়ে গেলে তা শনাক্তের প্রযুক্তি।ঘড়িটি এমন অবস্থায় জরুরি চিকিৎসা সেবার জন্য নিজেই যোগাযোগ শুরু করতে সক্ষম।তাছাড়া এট্রিয়াল ফিব্রিলেশন হিসেবে পরিচিত হৃৎপিণ্ডের মারাত্মক রোগের লক্ষণ সনাক্ত করতে পারবে অ্যাপল ওয়াচ।যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে,চতুর্থ প্রজন্মের অ্যাপেল ওয়াচের সর্বনিম্ন মূল্য এখন চারশ ডলার।

অ্যাপল ওয়াচে আগে থেকেই ছিল হার্ট রেট অ্যালার্ট ফিচার।এবার তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ‘লো হার্ট রেট অ্যালার্ম’, অনিয়মিত হার্ট রেটের লক্ষণ দেখা দিলে সতর্ক করার ব্যবস্থা ও ইসিজি করার ব্যবস্থা। অ্যাপলের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির সিওও জেফ উইলিয়ামস মন্তব্য করেছেন, ‘এটি প্রথম ইসিজি করার যন্ত্র যা ক্রেতাদের সরাসরি ব্যবহারের জন্য বাজারে আনা হয়েছে। আমরা ঘড়ির পেছনে সেন্সর যুক্ত করে দিয়েছি, যা দিয়ে আপনি যেকোনও সময় ইলেক্ট্রোকার্ডিওগ্রাম করতে পারবেন।’

এ প্রসঙ্গে কথা বলতে অ্যাপলের নতুন পণ্য উন্মোচনের জন্য আয়োজিত অনুষ্ঠানের মঞ্চে উপস্থিত হন আইভর বেঞ্জামিন। তিনি আমেরিকান হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট। তার ভাষ্য, রোগীরা অনেক সময়ই এমন লক্ষণের কথা বলেন যা চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার পর আর দেখা যায় না। এমন লক্ষণের কথা শুনে রোগ নির্ণয় করা খুবই কঠিন।’ এসব ক্ষেত্রে অ্যাপল ওয়াচ সহায়ক হতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রে ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (এফডিএ) অনুমতি পেয়েছে ঘড়িটি।

অ্যাপেল ওয়াচের চতুর্থ সংস্করণটি ‘পড়ে যাওয়া’ সনাক্ত করতে পারে।অর্থাৎ হাতে ঘড়ি পরে থেকে কেউ যদি অসুস্থ হয়ে মেঝেতে পড়ে যায় তাহলে তা শনাক্তের প্রযুক্তি রয়েছে চতুর্থ প্রজন্মের অ্যাপেল ওয়াচে।যখন কেউ উল্টে পড়ে, তখন হাতসহ শরীরের অন্যান্য নড়াচড়া হয় এক রকম আর অসুস্থ হয়ে সংজ্ঞা হারিয়ে মেঝেতে পড়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে শারীরিক নড়াচড়া হয় আরেক রকম।শরীরের নড়াচড়া সংক্রান্ত অজস্র তথ্য বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে অ্যাপেল ওয়াচ।‘পড়ে যাওয়ার’ এক মিনিটের মধ্যে নড়াচড়া না করলে সঙ্গে সঙ্গে জরুরি চিকিৎসা সেবার জন্য নিজে থেকেই যোগাযোগ শুরু করবে ঘড়িটি।

স্বাস্থ্য তথ্যের গোপনীয়তার প্রসঙ্গে অ্যাপল দাবি করেছে, সমস্ত তথ্যই এনক্রিপ্টেড অবস্থায় ঘড়িতেই সংরক্ষিত থাকে।এ তথ্য কার সঙ্গে শেয়ার করা হবে তার পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ থাকবে ব্যবহারকারীর হাতেই।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: