রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
চ্যারিটেবল মামলায় দণ্ডের বিরুদ্ধে খালেদার আপিল  » «   সিরিয়ায় মার্কিন বিমান হামলা; শিশু ও নারীসহ নিহত ৪৩  » «   থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা  » «   দু’দিনের মধ্যেই খাশোগি হত্যার পরিপূর্ণ তদন্ত রিপোর্ট : ট্রাম্প  » «   বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন তারেক  » «   বাড়িতে বাবার লাশ, পিএসসি পরীক্ষা দিতে গেল মেয়ে  » «   প্রবাসী স্ত্রীকে লাইভে রেখে সিলেটের স্বামীর আত্মহত্যা!  » «   খাশোগি হত্যা: যুক্তরাষ্ট্র-সৌদির নীল নকশা ও তুরস্কের উদ্দেশ্য  » «   দুই নম্বরি কেন ১০ নম্বরি হলেও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে থাকবে: ড. কামাল  » «   বোরকার বিরুদ্ধে সৌদি নারীদের অভিনব প্রতিবাদ  » «   আজ থেকে শুরু হচ্ছে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা  » «   সিডরে নিখোঁজ শহিদুল বাড়ি ফিরলেন ১১ বছর পর!  » «   ভাওতাবাজির জন্য সরকারকে গোল্ড মেডেল দেওয়া উচিৎ: ড. কামাল  » «   দিল্লির লাল কেল্লা দখলের হুমকি পাকিস্তানের!  » «   সত্য বলায় এসকে সিনহাকে জোর করে বিদেশ পাঠানো হয়েছে: মির্জা ফখরুল  » «  

অসামাজিক কাজে লিপ্ত অবস্থায় ডিসির ড্রাইভার আটক



হাটহাজারীতে অসামাজিক কাজে লিপ্ত অবস্থায় গভীর রাতে ডিসির সাবেক ড্রাইভার দুলাল বাবু (৫৫) এবং শিখা রানী (৩৫) নামের ২ জনকে আটক করেছে স্থানীয় এলাকাবাসি। আটক হওয়া দুলাল ৪ সন্তানের জনক এবং শিখা রানী ২ সন্তানের জননী। গত বৃহস্পতিবার (১১ মে) পবিত্র লাইলাতুল বারাতের রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার দক্ষিন পাহাড়তলী আদর্শগ্রামের পূণ বাবুর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে ছিঃ ছিঃ রব উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিন পাহাড়তলী আদর্শ গ্রামের দুলাল বাবু(ডিসির সাবেক ড্রাইভার)একই এলাকার হিন্দু ধর্মের অনুসারি ২ সন্তানের জননী শিখা রানীর সাথে তার ঘরে অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয়েছে এমন খবর পেয়ে এলাকার লোকজন একত্রিত হয়ে রানী দাসের ঘরে গিয়ে অন্তরঙ্গ অবস্থায় তাদের হাতে নাতে আটক করে। পরে সকালে স্থানীয় ভাবে টাকার বিনিময়ে ঘটনা মীমাংসার চেষ্টা করা হচ্ছে এমন খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা এলাকার কথিত মাতবর খালেক নামের এক ব্যক্তিকে ফোন দিলে অবস্থা বেগতিক দেখে তারা উভয়কে মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করবে বলে জানায়। দীর্ঘ ২ বছর ধরে তাদের মধ্যে এসব অনৈতিক কাজ চলছিলো। আটক শিখা রানীর সংসারে অসুস্থ স্বামী এবং ২ সন্তান অপরদিকে দুলাল বাবুর সংসারে ৪ সন্তান ও স্ত্রী রয়েছে বলেও জানায় খালেক।

এব্যাপারে অভিযুক্ত দুলাল বাবুর কাছে জানতে চাইলে তিনি অনৈতিক সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে বলেন, পূণ বাপের বাড়ীতে একটা পুজার দাওয়াতে গিয়েছিলাম আমি, ওখান থেকে আসার সময় শিখা রানীর ঘরে গিয়েছিলাম তার পরিবারের সাথে দেখা করতে । রাত দেড়টা দুইটার দিকে বেশ কিছু লোকজন একত্রিত হয়ে আমাদের আটক করে এবং আমাকে খুব মারধর করে তারা। এ সময় খালেক,ওসমান, ফারুক, কামাল ও উপস্থিত ছিলেন। এ নিয়ে সকালে স্থানীয় ভাবে বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও পরে থানায় নিয়ে যান কামাল।

সেখানে মডেল থানার ওসি সহ আমাদের একটা স্টাম্পে সাইন করিয়ে তার ফটোকপি আমাদের দিয়ে মূল কপি কামাল নিয়ে যায় । কাগজে কি লিখা হয়েছে এমন প্রশ্নের কোনো উত্তর দুলাল বাবু দিতে পারেননি। গোপন সূত্রে জানা যায়, এলাকার নেতা, মাতবর পরিচয় দেয়ারা আটক দুজনকে আইনের হাতে তুলে না দিয়ে থানা পুলিশের ভয় দেখিয়ে দুলালের কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা নিয়ে ঘটনা ধামাচাপা দেয়।

এ সম্পর্কে জানতে আদর্শ গ্রাম আওয়ামীলীগ সভাপতি পরিচয় দেয়া কামালের মোবাইল নাম্বারে একাধীকবার কল দিলেও ফোন নাম্বারটি(০১৮২২-৪৭৩১১১)বন্ধ রেখেছেন বলে রবি কর্তৃপক্ষ জানায়।

অভিযুক্ত শিখা রানী জানান, আমার স্বামী স্টোকের রোগী অক্ষম তাই দুলাল আর আমার মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। একটি মন্দিরে গিয়ে আমরা মালা বদল করেছি। বর্তমানে আমার গর্ভে দুলালের সন্তান আছে। যার বয়স প্রায় ২ মাস। রাতে আটক করার পর আমাকেও সরজয় ও সনজয় সহ তারা মারধর করেছে। মাতবর খালেক সহ এলাকার নেতা পরচিয় দেয়ারা তাকে কোনো টাকা-পয়সা দিয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে শিখা রানী বলেন,আমাকে কেউ কোনো টাকা-পয়সা দেয়নি।

শিখা রানীর স্বামী দিলীপ(৫০)বলেন,আমি স্ট্রোকের রোগী অসুস্থ মানুষ। তাই আমাকে পাত্তা দিতোনা তারা। আমার সামনেও তারা শারীরিক মেলামেশা করেছে। আমি ভয়ে,লজ্বায় কাউকে কিছু জানাতে পারিনি।

এ বিষয়ে মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এরকম কোনো ঘটনা আমার জানা নেই।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় কয়েকজন যুবক জানায়, আদর্শগ্রাম এলাকাটিতে একটি টাউট চক্র বেশ কিছুদিন ধরে রাজনৈতিক পরিচয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে সহজ সরল অসহায় মানুষদের বিভিন্ন ভাবে ফাঁদে ফেলে হয়রানি এবং শালিস ব্যবসা করে যাচ্ছে দাপটের সাথে। কেউ কোনো ধরনের অপরাধ করলে তাকে আইনের হাতে তুলে দিতে হবে এটাই স্বাভাবিক। জনগন কেনো আইন হাতে তুলে নিবে ? এ ব্যাপারে এলাকার সচেতন মহল যথাযত কর্তৃপক্ষের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: