সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

অর্ণবের তৈরী ওয়েবসাইট নিয়ে বির্তকের ঝড়



নিউজ ডেস্ক::ঝিনাইদহের স্কুল শিক্ষার্থী অর্ণবের তৈরী posttouch.com নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বির্তকের ঝড় উঠেছে। সাইটটির কারণে তাকে হত্যার হুমকিকে হাস্যকর বলছেন আইটি বিশেষজ্ঞরা।

ঝিনাইদহে ফেসবুকের ন্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পোষ্ট টাচ (posttouch.com) তৈরী করার পর তা বার বার হ্যাক হওয়ার পর নিজের নিয়ন্ত্রনে আনতে না পারায় হ্যাকাররা ক্ষুব্ধ হয়ে মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা দিয়ে হত্যার হুমকি দিচ্ছিল posttouch.com এর এ্যাডমিন ৭ম শ্রেণীর ছাত্র অর্ণবকে।

অর্নবের নিরাপত্তায় ঝিনাইদহ পুলিশ তার বাসার আশে পাশে প্রহরারও ব্যবস্থা করে। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়াসহ কয়েকটি ইলেকট্রনিক মিডিয়াতেও সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি আইটি বিশেষজ্ঞদের নজরে আসে। কোন কোন অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিক্রিয়ায় তারা অর্নবের দাবিকে ভূয়া বলে আখ্যা দিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ আনেন।

বিষয়টি নিয়ে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন এন্ড কমিনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জসিম উদ্দিনের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, posttouch.com সাইটটি বিশ্ময়কর কিছু না। সাইটটি অর্নবের নিজের তৈরী বলেও তিনি মনে করেন না। এমন টেমপ্লেট বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে কিনতে পাওয়া যায়।

তিনি বলেন, বর্তমানে ১হাজার থেকে ২ হাজার টাকায় ডোমেন কিনতে পাওয়া যায়। এমন সস্তা একটি টেমপ্লেট কিনে তা ডেভেলপ করার কারনে তাকে হ্যাকাররা মৃত্যুর হুমকি দিবে এটা হাস্যকর। কারণ হিসেবে তিনি জানান, এটির ইউজার সংখ্যা এখনও ১’শ এর নিচে। যে সাইটের এখনও মার্কেট ভ্যালু তৈরী হয়নি সেই সাইটের জন্য হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে এমন দাবী অতিরঞ্জিত কথন বলেই তিনি মনে করেন।

অর্ণবের তৈরী posttouch.com সম্পর্কে আইটি বোদ্ধাদের বক্তব্য তুলে ধরলে সে তার তৈরী posttouch.com একেক সময় একেক কথা বলছে। সে কখনও বলছে ওয়েব সাইটটি তার নিজের তৈরী আবার কখনও বলছে সে পাইনিওয়র কার্ডের মাধ্যমে এটির ডোমেন কিনে ডেভেলপ করেছে। বর্তমানে তাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে অর্ণব জানায়, পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর থেকে তাকে আর হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছেনা।

অর্ণবের সাথে কথা বলে আরো জানা যায়, সে ওয়েব সাইট তৈরি করার কাজ কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিখেনি। গুগল থেকে শিখেছে। গুগল ডাব্লিউ থ্রি স্কুল থেকে ফ্রেম নিয়ে সে এটি শিখেছে বলে জানায়।

এদিকে আইটি বিশেষজ্ঞরা জানান, এটি ওই ছেলে প্রতারণা মাত্র। কারন ডোমেন কিনে এ ধরনের ওয়েব সাইট ডেভেলপমেন্ট করা যায়। আর সাধারণত এ ধরনের ওয়েব সাইট ডেভেলপ করার কারনে তাকে হ্যাকাররা হত্যার হুমকি দিবে এটা বিশ্বাসযোগ্য নয়। এর নেপথ্যে অন্য কোন কারন থাকতে পারে।

আইটি বিশেষজ্ঞরা জানান, ইচ্ছা করলে হ্যাকাররা এ ধরনের ওয়েব পেজ যেকোন সময় হ্যাক করে নিতে পারেন। তার এ ওয়েব সাইট নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বর্তমানে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। অনেকে ফেসবুকে কমেন্টস্ করেছেন, ছেলেটি স্ক্রিপ্ট চুরি করেছে। হ্যাকাররা হুমকি দিচ্ছে অস্বাভাবিক মিথ্যা বলে এটেনশন পেতে চেয়েছে আর তার পিতা-মাতা এসব মিথ্যাকে সায় দিয়েছে।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) এমদাদুল হক শেখ জানান, অর্নবের পিতা আব্দুল আলীম ছেলের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি করার পর তাদের সাধ্যমত নিরাপত্তা দেওয়ার চেষ্টা করছি। আইটি বিশেষজ্ঞরা অর্ণবের হত্যার হুমকিকে হাস্যকর ও প্রতারণা বলে মনের করার বিষয়ে তিনি জানান সেটার তদন্ত হবে।

উল্লেখ্য ঝিনাইদহ সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র অর্ণব। পিতা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কর্মকর্তা। থাকেন শহরের ব্যাপারীপাড়ার একটি ভাড়া বাড়িতে।

উল্লেখ্য ঝিনাইদহ সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্র অর্ণবের দাবী ৫ম শ্রেনীতে পড়ার সময় থেকে কম্পিউটার নিয়ে নাড়াচারা শুরু করে। ইতিমধ্যে কম্পিউটার ও ওয়েব সাইট নির্মাণ নিয়ে অনেক কিছু শিখেছে সে। গত ১৬ ডিসেম্বর থেকে সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন ওয়েবসাইট তৈরীর কাজে হাত দেয়। ১৮ এপ্রিল সে সফল হয়। নাম দেয় পোষ্ট টাচ (posttouch.com)। নিজস্ব ডোমেইন কিনে লঞ্চ করেন সাইটটি। ৬৪ জন তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একাউন্ট খোলে। তৈরী করে পোষ্ট টাচ (posttouch.com) নামের অ্যাপস। তার এই সাফল্য চোখে পড়ে হ্যাকারদের। গত ২২ মে প্রথম তার ওয়েব সাইট পোষ্ট টাচ হ্যাক করা হয়। অনেক চেষ্টার পর তা উদ্ধার করা হয়।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: