শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ বৈশাখ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
নুসরাত হত্যা : পুলিশের ভূমিকার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চায় টিআইবি  » «   রাজীবের মৃত্যুর এক বছরেও মেলেনি ক্ষতিপূরণের কানাকড়ি  » «   দুর্যোগ সম্পর্কে সচেতনতামূলক প্রচারণা জরুরি : প্রধানমন্ত্রী  » «   বিএনপির ১৪ শীর্ষ নেতাদের জামিন বহাল  » «   একসঙ্গে পুড়ল তিন ভাইয়ের ‘স্বপ্ন’  » «   সিগারেট খেলে ফ্রিজ ফ্রি!  » «   রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়বে না : বাণিজ্যমন্ত্রী  » «   পাকিস্তানে নির্মিত হচ্ছে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম মসজিদ  » «   জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ‘মুজিবনগর দিবস’ উদযাপন  » «   ব্রুনাই সফরে ৬ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করবেন প্রধানমন্ত্রী  » «   বিশ্বের প্রভাবশালী ১০০ ব্যক্তির তালিকা প্রকাশ  » «   প্যারোলে মুক্তি ও এমপিদের শপথ গ্রহণ : যা ভাবছেন খালেদা জিয়া ও বিএনপি  » «   আপিলে হারলো যুক্তরাজ্য সরকার, কাটতে পারে বহু বাংলাদেশির ভিসা জটিলতা  » «   বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কলেজছাত্রীকে ছুরিকাঘাত  » «   লিবিয়ায় গৃহযুদ্ধ: নিরাপদ স্থানে সরানো হলো ৩০০ বাংলাদেশিকে  » «  

অভিবাসীবিরোধী নন ট্রাম্প



আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: অভিবাসীদের প্রতি বরাবরই কঠোর অবস্থান নিতে দেখা গেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। এ কারণে বেশ সমালোচিতও হয়েছেন তিনি। তবে ট্রাম্পকে অভিবাসীবিরোধী বলতে মোটেও রাজি নয় হোয়াইট হাউস। খবর এনডিটিভি।

হোয়াইট হাউসের প্রিন্সিপাল ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি রাজ শাহ বলেন, প্রথমত আমি মনে করিনা যে অভিবাসীদের প্রতি ট্রাম্প কঠোর বক্তব্য দিয়েছেন তার মানেই তিনি অভিবাসীবিরোধী। বরং তার এসব বক্তব্য কেবলমাত্র অবৈধ অভিবাসীদের জন্য।

কংগ্রেসনাল কমিটির এক আইনে এইচ-১বি ভিসাধারী ব্যক্তিদের নূন্যতম বেতন ৯০ হাজার থেকে ৬ লাখ মার্কিন ডলার করার কথা প্রস্তাব করার একদিন পরেই রাজ শাহ এমন মন্তব্য করেছেন। শ্রমিক ভিসার ক্ষেত্রে বিশেষ করে ভারতীয় আইটি বিশেষজ্ঞ বা আইটিতে কর্মরত ব্যক্তিদের কাছে এইচ-১বি ভিসা বেশ জনপ্রিয়।
তবে এইচ-১বি ভিসার ক্ষেত্রে বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হচ্ছে। রাজ শাহ বলেন, ট্রাম্প চান অভিবাসন নীতির মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি মেধাবী এবং যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তিদের সুযোগ করে দিতে। তিনি আইনের মাধ্যমে বৈধ পদ্ধতিগুলোকেই প্রতিষ্ঠা করতে চান।
তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অভিবাসনের ক্ষেত্রে বেশ কিছু চমৎকার প্রস্তাবণা এনেছেন। এগুলো কারো উপর চাপিয়ে দেয়া নয় বরং এটাকে মেধাভিত্তিক করার বৈধ পদ্ধতি যা মার্কিন অর্থনীতির কাজে আসবে এবং এক্ষেত্রে মার্কিন শ্রমিকদেরই আগে গুরুত্ব দেয়া হবে।
তিনি আরো বলেন, মার্কিন অর্থনীতিতে সহায়তা করতে অভিবাসী প্রত্যাশা, এখানে এসে জননিরাপত্তা এবং নিরাপত্তার জন্য হুমকি হতে পারে এমন ব্যক্তিকের যাচাই করাকে আমি মোটেও অযৌক্তিক মনে করি না। আমি মনে করি এটা অবশ্যই যৌক্তিক এবং জনগণ এটাকে সমর্থন করে।
তবে ট্রাম্পের বক্তব্যকে ভুলভাবে উপস্থাপন করায় মূলধারার গণমাধ্যমের সমালোচনা করেছেন রাজ শাহ। এসব খবরের কারণে হোয়াইট হাউসকে প্রায়ই হতাশ হতে হয় বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: