মঙ্গলবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৪ পৌষ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আমার কিছু হলে দায়ী আপনারা মামা-ভাগ্নে: সিইসিকে গোলাম মাওলা রনি  » «   ভুলভ্রান্তি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন: শেখ হাসিনা  » «   মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য অসত্য: সিইসি  » «   ভোটের ফলাফল প্রকাশে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশ  » «   ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় মইনুলের জামিন  » «   বাংলাদেশের বিজয় দিবসকে অবজ্ঞা শেহবাগের!  » «   সারাদেশে ১ হাজার ১৬ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন  » «   প্রার্থিতা নিয়ে রিট খারিজ, নির্বাচন করতে পারবেন না খালেদা জিয়া  » «   জামায়াতের ২২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলে রুল  » «   সিলেটে প্রাধান্য উন্নয়ন ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার  » «   বিএনপির ইশতেহার ঘোষণা করছেন ফখরুল  » «   আপিলেও ভোটের পথ খুলল না ইলিয়াসপত্নী লুনার  » «   যেসব ‘বিশেষ’ অঙ্গীকার থাকছে আ. লীগের নির্বাচনি ইশতেহারে  » «   আ.লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করছেন শেখ হাসিনা  » «   সিলেটে বিএনপি নেতাকর্মীদের মারধর ও ধরপাকড়ের অভিযোগ  » «  

অবশেষে ২ বাংলাদেশিকে মুক্তি দিল আইএস



69120_Libia_0নিউজ ডেস্ক :: অবশেষে মুক্তি মিললো দুই বাংলাদেশি হেলাল উদ্দিন ও মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনের। লিবিয়ার আল গানি তেলক্ষেত্র থেকে অপহরণের ১৮ দিন পর ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা মুক্তি দিয়েছে বলে মঙ্গলবার রাতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে।
মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সন্ধ্যায় মুক্তি পাওয়ার পর দুই বাংলাদেশিকে সিরাতের একটি হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। তারা দুই জনই সুস্থ আছেন।
আইএস জঙ্গিরা গত ৯ মার্চ লিবিয়ার সিরাত শহরের দক্ষিণে আল গানি তেলক্ষেত্রে হামলা চালিয়ে ১১ জন নিরাপত্তারক্ষীকে হত্যা করে।
নিরাপত্তা বাহিনী ওই তেলক্ষেত্রের নিয়ন্ত্রণ ফিরে পাওয়ার পর নয়জন কর্মীর অপহৃত হওয়ার বিষয়টি জানা যায়। তাদের মধ্যে বাংলাদেশের দুজন ছাড়াও চেক প্রজাতন্ত্র, অস্ট্রিয়া ও ফিলিপাইনের নাগরিক রয়েছেন।
বাংলাদেশি ওই দুই জনের মধ্যে আনোয়ারের বাড়ি নোয়াখালীতে এবং হেলালের জামালপুরে।
সন্ধ্যায় মুক্তি পেলেও একই দিন সকালে হেলাল উদ্দিন তার স্ত্রীকে ফোন করে দুই একদিনের মধ্যে মুক্তি পাওয়ার আশার কথা জানান।
চার মিনিটের ওই কথোপকথনে হেলাল তার স্ত্রী আলেয়া বেগমকে বলেন, অপহরণকারীরা ‘দুই এক দিনের মধ্যে তাকে ছেড়ে দিতে পারে’ বলে তাদের আলোচনা করতে শুনেছেন তিনি।
গত বছর ইরাক ও সিরিয়াসহ মধ্যপ্রাচ্যের বড় একটি এলাকা নিজেদের দখলে নিয়ে খিলাফত কায়েমের ঘোষণা দেয় আইএস, যার মধ্য দিয়ে নতুন করে বিশ্বজুড়ে জঙ্গিবাদের উত্থানের শঙ্কা তৈরি হয়।
সিরিয়া ও ইরাকে এই জঙ্গি দলটির হাতে নিহত হয়েছে কয়েক হাজার মানুষ। গত এক বছরে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, মিশর, জর্ডান ও তুরস্কের অর্ধশতাধিক নাগরিককে জিম্মি করার পর তাদের শিরোশ্ছেদ করে ইন্টারনেটে ভিডিও প্রকাশ করেছে এই সন্ত্রাসীরা।

 

 

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: