রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর হো‌টে‌লের সাম‌নে বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিএন‌পির বিক্ষোভ  » «   বিশ্বের চতুর্থ ভয়ঙ্করতম সংগঠন মাওবাদী!  » «   ফেঁসে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে গ্রিন কার্ড আবেদনকারীরা  » «   শাবিপ্রবিতে ছাত্রী হলের পানিতে মিলছে কেঁচো-জোঁক!  » «   সিলেটের ওসমানীনগরে বাস চাপায় নিহত ২, আহত ৩  » «   বনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষে ১১ সিংহের মৃত্যু  » «   তাবলিগের সংকট নিরসনে সরকারের পাঁচ নির্দেশনা  » «   গাজীপুরে বেতনের দাবিতে শ্রমিক বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ  » «   শূন্যপদের সঠিক তথ্য দিচ্ছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো  » «   আজ ঢাকায় আসছেন বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট  » «   এবার ক্ষুধার্ত পদ্মার পেটে যাচ্ছে শিবচর  » «   আইসিসি নিজেই মিয়ানমারের বিচারে সক্ষম: জাতিসংঘ মহাসচিব  » «   নাইজেরিয়ায় কলেরা সংক্রমণ; ৯৭ জনের মৃত্যু  » «   ধানের শিষ এখন পেটের বিষ: ওবায়দুল কাদের  » «   যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত, তবে শান্তির পথও খোলা: পাকিস্তান আর্মি  » «  

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে মারল স্বামী!



নিউজ ডেস্ক::পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর দেয়া আগুনে সোনিয়া খাতুন (২৪) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ নিহত হয়েছে।

সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে এই নির্মম ঘটনাটি সংগঠিত হয়েছে।

বুধবার (৭ মার্চ) ভোরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। সোনিয়া খাতুনের শরীরের প্রায় ৪০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানান চিকিৎসকরা।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, এনায়েতপুর থানার রুপনাই চড়কাদহ গ্রামের তাঁত শ্রমিক আব্দুল খালেকের মেয়ে সোনিয়া খাতুনের সাথে গোপালপুর বাজার সংলগ্ন আরেক তাঁত শ্রমিক জাহাঙ্গীর হোসেনের ৫ বছর আগে প্রেম করে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি চলছিল। এ নিয়ে বহুবার সালিশও হয়েছে।

কিন্তু হঠাৎ করে মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুরে জাহাঙ্গীর হোসেন কৌশলে তার ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সোনিয়াকে এনায়েতপুর সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার পাশের গলিতে এনে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।

এ আগুনে পুরো মুখমণ্ডল থেকে শুরু করে কোমর পর্যন্ত ঝলসে যায়। তখন সোনিয়ার চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে এসে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে সোনিয়াকে থানা পুলিশের আর্থিক সহায়তায় সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (৭ মার্চ) ভোরে মারা যান তিনি।

নির্মম এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর মা নুর নাহার বাদী হয়ে জাহাঙ্গীর হোসেনকে আসামি করে এনায়েতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

তিনি আরো বলেন, ‘সামান্য কিছু হলেই বিয়ের পর থেকে নির্যাতন অত্যাচার করতো আমার মেয়েকে। এ নিয়ে অসংখ্যবার দেন-দরবার হলেও জাহাঙ্গীর ভালো হয়নি। শেষ পর্যন্ত সে আমার নিরপরাধ অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে। আমরা ওদের ফাঁসি চাই।’

এ বিষয়ে এনায়েতপুর থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস বলেন, হাসপাতালে আনবে সে সামর্থ্যও ছিল না পরিবারটির। আমরা নিজে থেকে আর্থিক সহায়তা করে অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। নিমর্মম এই ঘটনায় নিহতের স্বামী জাহাঙ্গীর হোসেনকে আটকের জন্য জোর অভিযান চলছে। আটকের পর তাকে আইনানুগ উপর্যুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: