রবিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দিনে শিশু ধর্ষণ, রাতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত!  » «   আইফোনে আসছে ডুয়াল সিম সাপোর্ট!  » «   জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট : খালেদাকে আদালতে হাজির করার দিন আজ  » «   এবার বিজ্ঞাপনের জুটি নোবেল ও পূর্ণিমা  » «   লন্ডনে প্রধানমন্ত্রী‘চিন্তা করে দেখুন কত বড় সন্ত্রাসী সে’  » «   জাতীয় প্রেসক্লাবে ফখরুল‘অসৎ উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে খালেদাকে জেলে রাখা হয়েছে’  » «   ফেসবুকে অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুলএতেই তার এতো তেজ, এতো অনাচার!  » «   কাদেরের বক্তব্য ভয়ঙ্কর অশনি সংকেত : ফখরুল  » «   বি.কে.সি স্পোর্টিং ক্লাব চ্যাম্পিয়ন  » «   বাজে গল্পের সিরিয়াল ভারতে সামাজিক সমস্যা বাড়াচ্ছে : মমতা  » «   প্রবাসীদের সহযোগিতা দিতে আলাদা সেল গঠন করবে সরকার  » «   নাটোর-৪ আসনসাংসদ-মেয়র-চেয়ারম্যানের বিবাদ তুঙ্গে, হতাশা-বিভক্তি তৃণমূলেও!  » «   আলোচনায় অপু বিশ্বাসের নাচের ভিডিও  » «   পাশবিক! আট মাসের শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা  » «   খসরুর প্রশ্ন‘নির্বাচনে সেনা থাকলে আ’লীগের সমস্যা কি?’  » «  

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে মারল স্বামী!



নিউজ ডেস্ক::পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর দেয়া আগুনে সোনিয়া খাতুন (২৪) নামের এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ নিহত হয়েছে।

সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরে এই নির্মম ঘটনাটি সংগঠিত হয়েছে।

বুধবার (৭ মার্চ) ভোরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। সোনিয়া খাতুনের শরীরের প্রায় ৪০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানান চিকিৎসকরা।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, এনায়েতপুর থানার রুপনাই চড়কাদহ গ্রামের তাঁত শ্রমিক আব্দুল খালেকের মেয়ে সোনিয়া খাতুনের সাথে গোপালপুর বাজার সংলগ্ন আরেক তাঁত শ্রমিক জাহাঙ্গীর হোসেনের ৫ বছর আগে প্রেম করে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি চলছিল। এ নিয়ে বহুবার সালিশও হয়েছে।

কিন্তু হঠাৎ করে মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুরে জাহাঙ্গীর হোসেন কৌশলে তার ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সোনিয়াকে এনায়েতপুর সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার পাশের গলিতে এনে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়।

এ আগুনে পুরো মুখমণ্ডল থেকে শুরু করে কোমর পর্যন্ত ঝলসে যায়। তখন সোনিয়ার চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে এসে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় খাজা ইউনুছ আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

পরে সোনিয়াকে থানা পুলিশের আর্থিক সহায়তায় সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (৭ মার্চ) ভোরে মারা যান তিনি।

নির্মম এ ঘটনায় নিহত গৃহবধূর মা নুর নাহার বাদী হয়ে জাহাঙ্গীর হোসেনকে আসামি করে এনায়েতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

তিনি আরো বলেন, ‘সামান্য কিছু হলেই বিয়ের পর থেকে নির্যাতন অত্যাচার করতো আমার মেয়েকে। এ নিয়ে অসংখ্যবার দেন-দরবার হলেও জাহাঙ্গীর ভালো হয়নি। শেষ পর্যন্ত সে আমার নিরপরাধ অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে। আমরা ওদের ফাঁসি চাই।’

এ বিষয়ে এনায়েতপুর থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বিশ্বাস বলেন, হাসপাতালে আনবে সে সামর্থ্যও ছিল না পরিবারটির। আমরা নিজে থেকে আর্থিক সহায়তা করে অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। নিমর্মম এই ঘটনায় নিহতের স্বামী জাহাঙ্গীর হোসেনকে আটকের জন্য জোর অভিযান চলছে। আটকের পর তাকে আইনানুগ উপর্যুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: