শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ৩ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
দ্য হান্ড্রেডের ড্রাফটে আরও ৫ বাংলাদেশি ক্রিকেটার  » «   বাংলা একাডেমির সুপারিশে বদলে গেল বাংলা বর্ষপঞ্জি  » «   ওসমানীনগরে নামাজের সময় মাছ বিক্রি বন্ধ  » «   মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে হংকং ‘ডেমোক্রেসি অ্যাক্ট’ পাস  » «   গুগল ম্যাপে আবরারের নামে হল, খুনিদের নামে শৌচাগার  » «   গণশপথ নিয়ে আন্দোলনের ইতি টানলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা  » «   দক্ষিণ আফ্রিকায় মসজিদে যাওয়ার পথে গুলিতে বাংলাদেশির মৃত্যু  » «   তুরস্কের বিরুদ্ধে লড়তে কুর্দিদের ‘প্রশিক্ষণ দিয়েছিল’ যুক্তরাষ্ট্র  » «   অপরাধ প্রতিরোধে সাংবাদিকরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন: পুলিশ সুপার  » «   আবরার হত্যা: ২০ জনকে আসামি করে চার্জশিট হচ্ছে  » «   কানাইঘাটে ১১টি ভারতীয় গরু আটক  » «   জাবির গণরুম: ম্যানার শেখানোর নামে নবীন শিক্ষার্থী নির্যাতন  » «   কতগুলো বাটপার আছে যারা জাতীয় নেতা: ভিপি নুর  » «   ১৫ দিনে পাসপোর্ট না হলে কারণ জানিয়ে দিতে হবে আবেদনকারীকে  » «   ভারতে পালানোর সময় আবরার হত্যার আসামি সাদাত গ্রেফতার  » «  

অনুমোদন পেতে যাচ্ছে আরও দুই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়



অনুমোদন পেতে যাচ্ছে আরও দুই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

নতুন করে অনুমোদন পেতে যাচ্ছে আরও দুই বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়। এগুলো হলো- ‘রওশন এরশাদ ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি’ ও ‘ইউনিভার্সিটি অব ট্রাস্ট’। সম্প্রতি এ বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বিশ্ববিদ্যালয় দুটি হবে যথাক্রমে ময়মনসিংহ ও বরিশালে। এ নিয়ে দেশে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা হবে ৯৬টি।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ সংক্রান্ত পত্র সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেছে। এখন চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সার সংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর দফতরে পাঠানো হবে।

জানা গেছে, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ নিজের নামে একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছিলেন। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী নীতিগত সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। যা ময়মনসিংহ শহরে স্থাপন করা হবে।

অন্যদিকে ‘ইউনিভার্সিটি অব ট্রাস্ট’ -এর আবেদনকারী বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান কাজী মো. শফিকুল আলম। তবে বরিশালের সংসদ সদস্য তালুকদার মো. ইউনুস এর নেপথ্যে ভূমিকা রেখেছেন বলে জানা গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়টি বরিশাল নগরীর নবগ্রাম রোডের এমকো ভবনে স্থাপন করা হবে।

এর আগে গত জুলাই মাসে আরও তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন দেয় সরকার। এগুলো হলো- রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়; এর প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষাবিদ ড. আনিসুজ্জামান। বিশ্ববিদ্যালয়টির ইংরেজি নাম হবে ‘টেগোর ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ আর্টস’। যা স্থাপিত হবে বুড়িগঙ্গা নদীর ওপারে কেরানীগঞ্জে।

এছাড়া ‘ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজ’ স্থাপিত হবে বরিশালে। এর উদ্যোক্তা হিসেবে রয়েছেন বরিশালের বেসরকারি ইনফ্রা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান ইমরান চৌধুরী। তবে বিশ্ববিদ্যালয়টির পরিচালনা পর্ষদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজিত রায় নন্দী ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শওকত হোসেন খানও রয়েছেন বলে জানা গেছে।

তৃতীয়টির নাম ‘রূপায়ণ একেএম শামসুজ্জোহা বিশ্ববিদ্যালয়’। বিশ্ববিদ্যালয়টির উদ্যোক্তা হিসেবে রয়েছেন ব্যবসায়ী লিয়াকত আলী খান। এটি স্থাপতি হবে নারায়ণগঞ্জে।

এছাড়াও দুই দফায় আরও সাতটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এর মধ্যে ঢাকায় তিনটি এবং চট্টগ্রাম, খুলনা, কুষ্টিয়া ও মানিকগঞ্জে একটি করে বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৪১টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদন দিয়েছে সরকার। আরও নতুন ১২টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমোদন প্রক্রিয়া চলছে।

 

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: