সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ আশ্বিন ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
আবরার হত্যায় এবার মুজাহিদের স্বীকারোক্তি  » «   তিন সপ্তাহ ধরে কার্যালয়ে যান না যুবলীগ চেয়ারম্যান  » «   নোবেল পুরস্কার র‌্যাব-পুলিশের হাতে নয় : রিজভী  » «   বুরকিনা ফাসোতে মসজিদে ঢুকে ১৬ মুসল্লিকে গুলি করে হত্যা  » «   হবিগঞ্জে পাচারকালে ১২শ’ কেজি রসুন জব্দ  » «   সৌদি-ইরান উত্তেজনা মধ্যস্ততায় তেহরানের পথে ইমরান খান  » «   ঢাবি ‘খ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, ৭৬ শতাংশ ফেল  » «   সরকার ছাত্র রাজনীতি বন্ধের পক্ষে নয়: ওবায়দুল কাদের  » «   ৮ দিন পর ফিরলেন আমিরাতের প্রথম মহাকাশচারী  » «   শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত দলের সদস্য নিহত  » «   ছাত্র-শিক্ষক রাজনীতি নিষিদ্ধ চেয়ে হাইকোর্টে রিট  » «   টাইফুনে লন্ডভন্ড জাপান, নিহত বেড়ে ১৯  » «   আবরারের খুনিকে কারাগারে গণপিটুনি  » «   রাজীবের মৃত্যু: ১০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশ স্বজন পরিবহনকে  » «   আমি বহু ইস্যুতেই নোবেল পাই, ওরা দেয় না: ট্রাম্প  » «  

অনির্বাচিত সরকার ঠেকাতে ঘোষণাপত্রে স্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে



অনির্বাচিত সরকার ঠেকাতে ঘোষণাপত্রে স্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে

অনির্বাচিত সরকারের অধীনে বাংলাদেশ যাতে না পড়ে সে বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনের ঘোষণাপত্রে। এমনটাই জানিয়েছেন ঘোষণাপত্র উপ-কমিটির আহ্বায়ক শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে উপ-কমিটির বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি।

আগামী ২২ থেকে ২৩ অক্টোবর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে অনুষ্ঠিতব্য দলটির ২০তম জাতীয় সম্মেলন সফল করতে এ কমিটি গঠন করা হয়।

শেখ সেলিম বলেন, অনির্বাচিত সরকারের অধীনে বাংলাদেশে যাতে না পড়ে সে বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশনা থাকবে। সরকার পরিবর্তন বুলেটে নয়, ব্যালটে হবে। সেই বিষয়টিও ঘোষণাপত্রে থাকবে।

দেশকে আত্মনির্ভরশীল হিসেবে গড়ে তোলার দিক-নির্দেশনাসহ ঘোষণাপত্র চূড়ান্ত হতে যাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ ঘোষণাপত্রের আলোকে আওয়ামী লীগের আগামী নির্বাচনের ইশতেহার তৈরি করা হবে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের কথাটি বরাবরের মত এবারও আমাদের ঘোষণাপত্রে থাকবে। দেশে একজন যুদ্ধাপরাধী থাকা পর্যন্ত তার বিচার হবে।

শেখ সেলিম বলেন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত করার জন্য গৃহিত ১০টি মেগাপ্রকল্পের ঘোষণা থাকবে। যা বাস্তবায়ন হবে ২০৪০ সালের মধ্যে। যা সম্পূর্ণ হলে দেশের অর্থনৈতিক ভিত মজবুত হবে।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের ঘোষণাপত্রে সামাজিক নিরাপত্তার কথা রাখা হয়েছে। সমাজে ধনী-গরীবের বৈষম্য দূর করতে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপের কথাও উল্লেখ থাকবে।

তিনি বলেন, আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সমুদ্র জয় করেছি। সমুদ্রে যে প্রচুর পরিমাণ সম্পদ রয়েছে তা ব্যবহারের প্রক্রিয়াও আমাদের ঘোষণাপত্রে থাকবে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন কমিটির সদস্য মতিয়া চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন, মাহবুব উল আলম হানিফ, দীপু মণি, আব্দুল মান্নান, আব্দুর রাজ্জাক, আহমদ হোসেন,  আ ফ ম বাহা উদ্দিন নাছিম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ফরিদুন্নাহার লাইলী, র আ ম উবায়দুল মোক্তাদির চৌধুরী ও বিপ্লব বড়ুয়া প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: