সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ সংবাদ
লন্ডনে দ্বিতীয় জনপ্রিয় ভাষা বাংলা  » «   ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে সাব-রেজিস্ট্রার আটক  » «   আর কোনো হায়েনার দল বাংলার বুকে চেপে বসতে পারবে না  » «   সিলেটে মুক্তিযুদ্ধের পাণ্ডুলিপি সংগ্রহ করলেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী  » «   ফের জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সভাপতি সালমা ইসলাম এমপি  » «   বিয়ানীবাজারে ৯৯০ পিস ইয়াবাসহ পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী আটক  » «   আয়কর দিবস উপলক্ষে সিলেটে বর্ণাঢ্য র‌্যালি  » «   এবার শ্রীমঙ্গলে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন  » «   বেলজিয়ামে মসজিদে তালা দেওয়ায় বাংলাদেশিদের প্রতিবাদ  » «   পায়রা উড়িয়ে জাতীয় পার্টির ঢাকা জেলা শাখার সম্মেলন উদ্বোধন  » «   ভারতের অর্থনীতির দুরবস্থা, জিডিপি কমে সাড়ে ৪ শতাংশ  » «   পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করলেন শেখ হাসিনা  » «   লন্ডন ব্রিজে আবারও সন্ত্রাসী হামলা, নিহত ২  » «   চীন থেকে মা-বাবার জন্য পেঁয়াজ নিয়ে এলেন মেয়ে  » «   রক্তে ভাসছে ইরাক, নিহত ৮২  » «  

‘অগণতান্ত্রিক পন্থায় গণতান্ত্রিক সমস্যার সমাধান করা যায় না’



6. mizanনিউজ ডেস্ক::
জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড.মিজানুর রহমান বলেছেন, বাংলাদেশের মানুষের মানবাধিকার আজ মহা হুমকিতে রয়েছে। একটি পরাধীন ঐপনিবেশিক রাষ্ট্রে যেভাবে আন্দোলন করা হয় একটি স্বাধীন রাষ্ট্রে সেভাবে করা যায় না। কিন্তু দেশ আজ সেই পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে। সকল রাজনৈতিক দলকে মনে রাখতে হবে অগণতান্ত্রীক পন্থায় কখনো গণতান্ত্রীক সমস্যার সমাধান করা যায় না।

আজ (শনিবার) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স্ ইউনিটিতে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস অরগানাইজেশন (এফবিএইচআর্ও) আয়েজিত “সংঘাত নয়-সমঝোতা,সংহিসতা নয়-শান্তি” শীর্ষক্ এক গোল টেবিল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, কোনো স্বাধীন রাষ্ট্রের শক্তি প্রয়োগের একমাত্র ক্ষমতা হলো রাষ্ট্রের।কিন্তু বিএনপি জোট আন্দোলনের নামে সেই রাষ্ট্রীয় শক্তির বিরুদ্ধে, রাষ্ট্রীয় কাঠামোর বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছে। এটি অবশ্যই রাষ্ট্র দ্রহীতার শামীল।

ড. মিজানুর রহমান বলেন, দেশে আন্দোলনের নামে যেভাবে মানুষ পুড়িয়ে মারা হচ্ছে তাকে আর যাই হোক রাজনীতি বলা চলে না। এটি অবশ্যই সন্ত্রাস ও পৈষাচিকতা। অথচ আমরা লক্ষ করছি রাষ্ট্র শক্তি দিন দিন দুর্বল্ হয়ে পড়ছে। সরকারের মন্ত্রী-এমপিরা শুধু কথার ফুলঝুরি ঝরাচ্ছে।সরকার ঘোষণা দিল ৭ দিনের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে। কিন্তু আজ এক মাস অতিবাহিত হয়েছে এখন পর্যন্ত সরকারকে দৃশ্যমান কোনো পদক্ষেপ নিতে দেখা যায় নি যার মাধ্যমে এই পৈশাচিকতা রুখা যায়। আন্দোলন দমানোর নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক যেভাবে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ঘটছে তারও নিন্দা জানান মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান।

তিনি আরও বলেন, আইন বহির্ভূত বল প্রয়োগের পক্ষ পরিহার করতে হবে। একই সাথে বিএনপি জোটের উদ্দেশে বলেন, তাদেরকে সন্ত্রাসের পথ থেকে সরে আসতে হবে। কারণ সন্ত্রাসের সাথে কোনো অবস্থায় কোনো আলোচনা চলতে পারে না।
সংগঠনের আহ্বায়ক এডভোকেট ড. শাহজাহান এর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, সাবেক মন্ত্রী ও সেনাপ্রধান লে: জে: অব: নুরউদ্দিন খান, সাবেক বিচারপতি আবু কায়সার, সাবেক সাংসদ গোলাম মাওলা রনি প্রমুখ।

সংবাদটি সম্পর্কে আপনার বস্তুনিষ্ট মতামত প্রকাশ করুন

টি মন্তব্য

সংবাদটি শেয়ার করুন

Developed by: